top of page

মাদক খাইয়ে সর্বস্ব লুঠ, চলন্ত ট্রেন থেকে ধাক্কা

গতকাল রাতে এক যাত্রীকে মাদক খাইয়ে সর্বস্ব লুঠ করে তাঁকে ট্রেন থেকে ধাক্কা মেরে ফেলে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে অজ্ঞাতপরিচয় দুষ্কৃতীদের বিরুদ্ধে। এই ঘটনায় ওই রেলযাত্রীর বাম হাত কাটা গিয়েছে। বর্তমানে তিনি মালদা মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।


আহত রেলযাত্রী কান্ত সিং, বয়স ২৮। অসমের শিবসাগর এলাকায় তাঁর বাড়ি। এদিন মালদা মেডিক্যাল কলেজে জ্ঞান ফেরার পর তিনি বলেন, ব্রহ্মপুত্র মেলে তিনি দিল্লিতে দাদার বাড়ি যাচ্ছিলেন। অসংরক্ষিত কামরাতেই সফর করছিলেন তিনি। ট্রেন কিশানগঞ্জ ছাড়তেই ৩-৪ জন যুবক তাঁর সঙ্গে ভাব জমায়। তারা তাঁকে চা খাওয়ায়। তারপরেই তাঁর মাথা ঝিমঝিম করতে শুরু করে। তিনি বুঝতে পারেন, তাঁকে মাদকজাতীয় কিছু খাওয়ানো হয়েছে। ওই লুঠেরার দল তাঁর সর্বস্ব কেড়ে নিয়ে তাঁকে ধাক্কা দিয়ে ট্রেন থেকে ফেলে দেয়। তারপর তাঁর কিছু মনে নেই। মাঝরাতে জ্ঞান ফিরলে দেখেন, তাঁর বাম হাত নেই। তিনি হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন।


মাদক খাইয়ে সর্বস্ব লুঠ, চলন্ত ট্রেন থেকে ধাক্কা

ট্রেন কিশানগঞ্জ ছাড়তেই ৩-৪ জন যুবক তাঁর সঙ্গে ভাব জমায়। তারা তাঁকে চা খাওয়ায়। তারপরেই তাঁর মাথা ঝিমঝিম করতে শুরু করে। ওই যুবককে হরিশ্চন্দ্রপুর সংলগ্ন কুমেদপুর ও খুড়িয়াল স্টেশনের মাঝে পড়ে থাকতে দেখেন ইসলামপুর জিআরপি থানার পুলিশকর্মীরা।


এদিকে গতকাল রাতে ওই যুবককে হরিশ্চন্দ্রপুর সংলগ্ন কুমেদপুর ও খুড়িয়াল স্টেশনের মাঝে পড়ে থাকতে দেখেন ইসলামপুর জিআরপি থানার পুলিশকর্মীরা। পাশেই পড়ে ছিল তাঁর কাটা হাত। তাঁরা অজ্ঞান অবস্থায় ওই যুবককে স্থানীয় হরিশ্চন্দ্রপুর গ্রামীণ হাসপাতালে নিয়ে যান। সেখানে তাঁর চিকিৎসা করেন ওই হাসপাতালে কর্মরত চিকিৎসিক শুভেন্দু ভক্ত। তিনি জানান, ওই যুবকের অতিরিক্ত রক্তক্ষরণ হচ্ছিল। তাই প্রাথমিক চিকিৎসার পর রাত ১০টা নাগাদ তাঁকে মালদা মেডিক্যাল কলেজে পাঠিয়ে দেওয়া হয়।

গোটা ঘটনায় তদন্ত শুরু করেছে রেলপুলিশ। তদন্ত শুরু করেছে হরিশ্চন্দ্রপুর থানার পুলিশও। তবে এখনও পর্যন্ত দুষ্কৃতী দলকে চিহ্নিত করতে পারা যায়নি।


আমাদের মালদা এখন টেলিগ্রামেও। জেলার প্রতিদিনের নিউজ পড়ুন আমাদের অফিসিয়াল চ্যানেলে। সাবস্ক্রাইব করতে ক্লিক করুন

Comentarios


বিজ্ঞাপন

Malda-Guinea-House.jpg

আরও পড়ুন

bottom of page