top of page

সংশোধনাগারে গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা বন্দির

সংশোধনাগারের ভেতরে গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করল এক বিচারাধীনবন্দি। ঘটনাটি ঘটেছে মালদা জেলার সংশোধনাগারে। মৃতদেহটি ময়নাতদন্তের জন্য মালদা মেডিকেলে পাঠিয়ে ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ। মৃত যুবকের পরিবারের দাবি, সংশোধনাগারের ভিতর থাকা অন্যান্য বন্দিদের অত্যাচারেই আত্মহত্যা করতে বাধ্য হয়েছেন ওই যুবক৷



মৃত বন্দির নাম রাজু মণ্ডল (৩২)। বাড়ি ইংরেজবাজার থানার কৃষ্ণপল্লি নেতাজি কলোনি এলাকায়। সংশোধনাগার সূত্রে জানা গিয়েছে, চলতি বছরের ১৯ শে মার্চ স্থানীয় শিশু ধর্ষণের অভিযোগে পুলিশ তাকে গ্রেফতার করে আদালতে পাঠায়। বর্তমানে সে বিচারাধীন অবস্থায় সংশোধনাগারে ছিল। সংশোধনাগারের কর্মীরা দুপুরে বন্দিদের গণনা করার সময় থেকে রাজুর খোঁজ পাচ্ছিলেন না। খোঁজাখুজি শুরু করতেই সংশোধনাগারের নব নির্মিত একটি বিল্ডিংয়ে গলায় ফাঁস লাগানো অবস্থায় ঝুলন্ত অবস্থায় দেখা যায় তাঁকে। সংশোধনাগার কর্তৃপক্ষ মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মালদা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। সংশোধনাগার কর্তৃপক্ষ মৃত্যুর কারণ নিয়ে কোনোও প্রতিক্রিয়া দিতে চায়নি।

বিজ্ঞাপন

Malda-Guinea-House.jpg

আরও পড়ুন

bottom of page