top of page

নিজের রাজ্যটাকে বাঁচান মমতাকে কটাক্ষ রাহুলের

‘আগে নিজের রাজ্যটাকে বাঁচান৷ নিজের রাজ্যটাই চলে যাবে৷ আর দিল্লি দখলের স্বপ্ন তাঁর কাছে স্বপ্নই থেকে যাবে৷’ এদিন সকালে রাজনৈতিক কর্মসূচিতে মালদায় এসে এই ভাষাতেই মুখ্যমন্ত্রীকে কটাক্ষ করলেন বিজেপি নেতা রাহুল সিন্‌হা৷


অন্যান্য জেলার মতো এদিন মালদাতেও বিজেপির জেলা প্রশাসনিক ভবন ঘেরাও কর্মসূচি ছিল, তাতে যোগ দিতেই সকালে মালদায় আসেন রাহুলবাবু৷ সঙ্গে ছিলেন দলের যুব মোর্চার রাজ্য সভাপতি৷ মালদা স্টেশনে সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে মূলত তিনটি বিষয় নিয়ে বক্তব্য রাখেন রাহুলবাবু৷ তার মধ্যে রয়েছে কাশ্মীর প্রসঙ্গ, মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ফেডারেল ফ্রন্ট ও আসন্ন লোকসভা নির্বাচনের জন্য দলীয় প্রস্তুতি৷ রাহুলবাবু বলেন, মেহবুবা মুফতির সরকারের জন্যই কাশ্মীরে উগ্রপন্থা আবার ফিরে এসেছে৷ উগ্রপন্থীদের মোকাবিলা করতে ব্যর্থ হয়েছেন সেখানকার মুখ্যমন্ত্রী৷ যতটা ব্যবস্থা নেওয়ার প্রয়োজন ছিল তা তিনি নেননি৷ আর সেই দায় এসে পড়ছে বিজেপির কাঁধে৷ এই অবস্থায় মেহবুবা মুফতির সরকারের উপর থেকে সমর্থন প্রত্যাহার করা ছাড়া বিজেপির কাছে অন্য কোনও উপায় ছিল না৷ গণতন্ত্রের আবহাওয়া ফিরে এলে সেখানে ফের গণতান্ত্রিক সরকার প্রতিষ্ঠা করা হবে৷ রাহুলবাবু আরও বলেন, এবার তাঁরা আতঙ্কবাদীদের নির্মূল করবেন৷ সেই বিশ্বাস নিয়েই তাঁরা মেহবুবা মুফতির সরকারের উপর থেকে সমর্থন প্রত্যাহার করেছেন৷

লোকসভা নির্বাচনের আগে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ফেডারেল ফ্রন্ট নিয়েও এদিন তাঁকে কটাক্ষ করেন রাহুল সিন্‌হা৷ তিনি বলেন, ‘মমতা ব্যানার্জিকে বলব, আগে নিজের রাজ্যটাকে বাঁচান৷ নিজের রাজ্যটাই চলে যাবে৷ আর দিল্লি দখলের স্বপ্ন তাঁর কাছে স্বপ্নই থেকে যাবে৷’ সম্প্রতি পঞ্চায়েত নির্বাচনে বিজেপি নিজেদের রাজ্যের দ্বিতীয় বৃহত্তম দল বলে দাবি করলেও তৃণমূলের সঙ্গে তাদের ভোটের ব্যবধান অনেক৷ এনিয়ে রাহুলবাবুকে প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন, যে রাজ্যে ২০ হাজার আসনে বিরোধীরা প্রার্থীই দিতে পারেনি, যে রাজ্যে নির্বাচনের পর এখনও ওই ২০ হাজার আসনের ফল আদালতে বিচারাধীন, যেখানে বন্দুকের মুখোমুখি হয়ে মনোনয়ন জমা দিতে হয়, যেখানে গণনাকেন্দ্রে শাসকদল ও পুলিশ জোর করে শংসাপত্র গ্রহণ করে, সেখানে ভোট হয়েছে বলা যাবে কী করে! যেদিন মানুষ শান্তিতে ভোট দিতে পারবে, সেদিন আর এই রাজ্যে তৃণমূলের সরকার থাকবে না৷ এখানে বিজেপির সরকার থাকবে৷ রাহুলবাবু জানান, আগামী লোকসভা নির্বাচনে বিজেপি এই রাজ্যে ভালো ফল করবে৷ তৃণমূলও তা বুঝে ফেলেছে৷ তাই এখন তারা তাঁদের বিরুদ্ধে মিথ্যা প্রচার শুরু করেছে৷


আমাদের মালদা এখন টেলিগ্রামেও। জেলার প্রতিদিনের নিউজ পড়ুন আমাদের অফিসিয়াল চ্যানেলে। সাবস্ক্রাইব করতে ক্লিক করুন

ভিডিয়োঃ কৃতাঙ্ক


বিজ্ঞাপন

Malda-Guinea-House.jpg

আরও পড়ুন

bottom of page