top of page

নিজের ক্যারিশমায় জিততে পারবেন না জেনে তৃণমূলে মৌসম

বরকতদার সময়ে কংগ্রেস মজবুত ছিল। এখন দিদির নেতৃত্বে তৃণমূল কংগ্রেস মজবুত হয়ে উঠেছে। তাই দিদির হাত শক্ত করতেই তৃণমূলে যোগদান করলেন তিনি। মালদায় এসে এমনটাই জানালেন উত্তর মালদার সাংসদ মৌসম। গতকাল কংগ্রেস ছেড়ে তৃণমূল কংগ্রেসে যোগ দিয়েছেন গনি পরিবারের মেয়ে মৌসম নূর। গতকাল সেই খবর ছড়িয়ে পড়তেই পোস্ট অফিস মোড়ে কেষ্টদার চায়ের দোকান থেকে পার্টি অফিস পর্যন্ত সবজায়গাতেই আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে রয়েছেন তিনিই। এদিন দুপুরে তাঁকে স্বাগত জানাতে মালদা স্টেশনে নেমে পড়ে দলের সমর্থকদের ঢল। হাতে ফুলের তোড়া নিয়ে হাজির হন জেলা তৃণমূল নেতৃত্বরাও। উপচে পড়া ভিড়ে এরমধ্যে হাতাহাতিও হয় কর্মীদের মধ্যে। তবে সমস্ত কিছু ছাপিয়ে গেল মালদা স্টেশনে মৌসমের জয়ধ্বনি।


মালদায় পৌঁছে মৌসম জানান, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও শুভেন্দু অধিকারীর নেতৃত্বে কাল তিনি তৃণমূলে যোগ দিয়েছেন৷

এদিন সকাল থেকেই মালদা স্টেশনে মৌসমকে স্বাগত জানাতে উপস্থিত ছিলেন তৃণমূলের কর্মী সমর্থকেরা। বেলা গড়াতেই স্টেশনের পার্কিং-এ জমা হতে থাকে একের পর এক গাড়ি। সদ্য তৃণমূলে যোগ দেওয়া মৌসমকে স্বাগত জানাতে স্টেশনে হাজির হয়েছিলেন জেলা তৃণমূল কংগ্রেস সভাপতি ডঃ মোয়াজ্জেম হোসেন, জেলা তৃণমূলের কার্যকরী সভাপতি দুলাল সরকার, বিধায়ক নীহাররঞ্জন ঘোষ, জেলাপরিষদের সভাধিপতি গৌরচন্দ্র মণ্ডল, যুব তৃণমূল সভাপতি অম্লান ভাদুড়ি সহ অন্যান্য নেতৃত্ব৷ দুপুর দেড়টায় ভরে যায় মালদা টাউন স্টেশন। যাত্রীদের প্ল্যাটফর্মে হাঁটাচলাও দায় হয়ে উঠেছিল। ট্রেন পৌঁছনোর খবর ঘোষণা হতেই উচ্ছ্বসিত হয়ে ওঠেন কর্মী-সমর্থকরা। হাতাহাতিতেও জড়িয়ে পড়েন কিছু কর্মী। জেলা নেতৃত্বের হস্তক্ষেপে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসে।

মালদায় পৌঁছে মৌসম জানান, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও শুভেন্দু অধিকারীর নেতৃত্বে কাল তিনি তৃণমূলে যোগ দিয়েছেন৷ তাঁর বিশ্বাস দিদির নেতৃত্বে মালদার দুটো আসন সহ রাজ্যের ৪২টি আসনেই তৃণমূল জয়লাভ করবে৷ পশ্চিমবঙ্গের ওপর বিজেপি'র কুনজর রয়েছে৷ বিজেপিকে রুখতে দিদির হাত ধরেছেন তিনি।

তিনি আরও জানান, দাদা ইশা খান ও মামা আবু হাসেম খান চৌধুরিকেও তিনি অনুরোধ করবেন তৃণমূল কংগ্রেসে যোগ দেওয়ার জন্য৷ তবে তাঁরা কংগ্রেস থেকে প্রার্থী হলেও তাঁর সমস্যা নেই। এটা রাজনীতির লড়াই এখানে ব্যক্তিগত কোনও শত্রুতা নেই৷ মালদার উন্নয়নের জন্য তৃণমূলের সঙ্গে একই পরিবারের মত কাজ করবেন তিনি৷


আমাদের মালদা এখন টেলিগ্রামেও। জেলার প্রতিদিনের নিউজ পড়ুন আমাদের অফিসিয়াল চ্যানেলে। সাবস্ক্রাইব করতে ক্লিক করুন

Comments


বিজ্ঞাপন

Malda-Guinea-House.jpg

আরও পড়ুন

bottom of page