top of page

বাংলাদেশ থেকে নাবালিকাকে ফিরিয়ে আনল পুলিশ

প্রেমের ফাঁদে পা দিয়েছিল অষ্টম শ্রেণির ছাত্রী। বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ওই নাবালিকাকে বাংলাদেশে নিয়ে চলে যায় অভিযুক্ত। অবশেষে বাংলাদেশ পুলিশ ও ভারতীয় বিভিন্ন দপ্তরের সহায়তায় ওই নাবালিকাকে ফিরিয়ে আনল চাঁচল থানার পুলিশ। আজ গোপনজবানবন্দির জন্য ওই নাবালিকাকে চাঁচল মহকুমা আদালতে পেশ করা হয়েছে।



চাঁচল থানার পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, ওই নাবালিকার বাড়ি চাঁচলের মকদুমপুর গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকায়। বছর দেড়েক স্থানীয় এক বিবাহিত যুবকের ফাঁদে পা দেয় ওই নাবালিকা। যুবকের বিয়ের কথা জানতে না পেরে প্রেমে বিশ্বাস করে ওই যুবকের সঙ্গে পালিয়ে যায় সে। এরপরেই পুলিশে অভিযোগ দায়ের করেন ওই নাবালিকার বাবা। তদন্তে নেমে পুলিশ মোবাইলের লোকেশন ট্র্যাক করে জানতে পারে, ওই যুবক মেয়েটিকে কাটিহার-কোচবিহার-দিনহাটা হয়ে বাংলাদেশ নিয়ে যায়। এরপরেই পুলিশ সুপারের নির্দেশে চাঁচল থানার পুলিশ সিআইডি, ভারতীয় হাইকমিশন ও বাংলাদেশ পুলিশের সঙ্গে যোগাযোগ করে। বাংলাদেশ পুলিশ ওই নাবালিকাকে টেকনা থানার পূর্ব শিকদার পাড়া থেকে উদ্ধার করে। গতকাল রাতে বাংলাদেশ পুলিশ আদালতের নির্দেশে বেনাপোল পেট্রাপোল সীমান্তে মেয়েটিকে চাঁচল থানার পুলিশের হাতে তুলে দেয়।

চাঁচল থানার পুলিশ জানিয়েছে, উদ্ধার হওয়া নাবালিকার গোপনজবানবন্দির জন্য আজ তাকে চাঁচল মহকুমা আদালতে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। পরে তাকে চাইল্ড ওয়েলফেয়ার কমিটির হাতে তুলে দেওয়া হবে।




আমাদের মালদা এখন টেলিগ্রামেও। জেলার প্রতিদিনের নিউজ পড়ুন আমাদের অফিসিয়াল চ্যানেলে। সাবস্ক্রাইব করতে ক্লিক করুন

বিজ্ঞাপন

Malda-Guinea-House.jpg

আরও পড়ুন

bottom of page