top of page

তৃণমূলী প্রধানের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ দলীয় কর্মীদের

তৃণমূলী প্রধানের বিরুদ্ধে কোটি কোটি টাকা আত্মসাতের অভিযোগ তুলে সরব দলীয় কর্মী-সমর্থকরা। এনিয়ে জেলা ও ব্লক প্রশাসনের কাছে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন স্থানীয় বাসিন্দারা। যদিও সমস্ত অভিযোগ ভিত্তিহীন বলে দাবি করেছেন পঞ্চায়েত প্রধান। ঘটনাকে কেন্দ্র করে চাঞ্চল্য মানিকচকে।


মানিকচক ব্লকের ধরমপুর গ্রামপঞ্চায়েত তৃণমূল পরিচালিত। নির্দল থেকে জয়ী হলে তৃণমূলে যোগদান করে প্রধান হয়েছেন রবিউল ইসলাম। তাঁর বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ তুলেছেন স্থানীয় বাসিন্দারা। অভিযোগকারীদের দাবি, গ্রামপঞ্চায়েতে রাস্তার ক্যানেল খননের টেন্ডার করা হয়। তবে সেই কাজ না করেই টাকা তুলে আত্মসাৎ করেছেন গ্রামপঞ্চায়েত প্রধান সহ তাঁর সহযোগীরা। শুধু তাই নয়, ১০০ দিনের কাজে বেআইনিভাবে আত্মীয়-পরিজনদের ব্যাংক অ্যাকাউন্টের মাধ্যমেও টাকা আত্মসাৎ করেছেন প্রধান। সমস্ত দুর্নীতির অভিযোগ নিয়ে মালদা জেলা প্রশাসন ও মানিকচক ব্লক প্রশাসনের দ্বারস্থ হয়েছেন স্থানীয় বাসিন্দারা।


অভিযোগকারী তৃণমূল কর্মী শেখ রুহুল জানান, মুখ্যমন্ত্রী দুর্নীতিবাজদের বিরুদ্ধে করা নির্দেশ দিয়েছেন। দলের কেউ দুর্নীতির সঙ্গে যুক্ত থাকলে তার বিরুদ্ধে সরব হওয়ার কথা বলেছেন। মুখ্যমন্ত্রীর কথা মাথায় রেখে দলের প্রধানের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেছেন তাঁরা।



গ্রামপঞ্চায়েত প্রধান রবিউল ইসলামের দাবি, সমস্ত অভিযোগ ভিত্তিহীন। রাজনৈতিক প্রতিহিংসার কারণে তাঁর বিরুদ্ধে মিথ্যে অভিযোগ করা হচ্ছে।




আমাদের মালদা এখন টেলিগ্রামেও। জেলার প্রতিদিনের নিউজ পড়ুন আমাদের অফিসিয়াল চ্যানেলে। সাবস্ক্রাইব করতে ক্লিক করুন

Comentários


বিজ্ঞাপন

Malda-Guinea-House.jpg

আরও পড়ুন

bottom of page