top of page

কালিয়াচক থেকে উদ্ধার ওমিক্রন সংক্রমিত কিশোর

রাজ্যে তথা মালদায় প্রথম ওমিক্রন আক্রান্তের খোঁজ মিলল। সংক্রমিত ওই কিশোরের বাড়ি মুর্শিদাবাদে হলেও সে কালিয়াচকে মামার বাড়িতে ছিল। ওই কিশোরকে উদ্ধার করে মালদা মেডিকেল কলেজে নিয়ে আনার প্রক্রিয়া শুরু করেছে স্বাস্থ্য দফতর। পাশাপাশি ওই কিশোর কার কার সংস্পর্শে এসেছিলেন তাও খতিয়ে দেখা হচ্ছে বলে জানান জেলার মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিক।



জেলার মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিক পাঁপড়ি নায়েক জানান, রাজ্য স্বাস্থ্য দফতর থেকে প্রথম ওমিক্রন আক্রান্তের বিষয়টি তাঁরা জানতে পারেন। সংক্রমিত কিশোর কালিয়াচক-১ ব্লকে তার মামার বাড়িতে ছিল। তড়িঘড়ি তাকে মালদা মেডিকেল কলেজে নিয়ে আসার প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে। তাঁরা জানতে পেরেছেন, বাচ্চাটি তার পরিবারের সঙ্গে আবু ধাবি থেকে প্রথমে হায়দরাবাদ পরে কলকাতায় আসেন। কলকাতা থেকে নিজেদের গাড়িতে মালদার উদ্দেশ্যে রওয়ানা দেন তারা। মুর্শিদাবাদের বেনিয়াগ্রামে তার বাবা নেমে গেলেও মা ও কিশোর মালদার কালিয়াচকে আসেন। হায়দরাবাদে ওই কিশোরের বাবা-মায়ের নমুনা নেগেটিভ এলেও বাচ্চাটির লালার নমুনা পরীক্ষায় করোনা ধরা পড়ে। পরে সেই নমুনার জিনোম সিকোয়েন্সি টেস্ট করে ওমিক্রনের সন্ধান মেলে। কিন্তু ততক্ষণে তারা মালদায় চলে এসেছে। তাঁদের টিম ওই বাচ্চাটির মামার বাড়িতে পৌঁছে গিয়েছে। আক্রান্ত বাচ্চা ও তার মাকে মালদা মেডিকেলের কোভিড ওয়ার্ডে আইসোলেশনে রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। পাশাপাশি ওই পরিবারের প্রত্যেকের লালার নমুনা পরীক্ষার জন্য সংগ্রহ করা হচ্ছে।





আমাদের মালদা এখন টেলিগ্রামেও। জেলার প্রতিদিনের নিউজ পড়ুন আমাদের অফিসিয়াল চ্যানেলে। সাবস্ক্রাইব করতে ক্লিক করুন

Comments


বিজ্ঞাপন

Malda-Guinea-House.jpg

আরও পড়ুন

bottom of page