top of page

কংগ্রেস-তৃণমূল সংঘর্ষে উত্তেজনা পুরাতন মালদায়

তৃতীয় দফার নির্বাচনের আগে কংগ্রেস ও তৃণমূলের সংঘর্ষে ব্যাপক উত্তেজনা পুরাতন মালদার মহিষবাথানি গ্রামপঞ্চায়েতের নতুনটোলা গ্রামে। দুই দলের সংঘর্ষে আহত হয়েছেন এক পুলিশকর্মী সহ চারজন। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে এলাকার টহলদারি চালাচ্ছে কেন্দ্রীয় বাহিনী। এই ঘটনায় তৃণমূলের তরফে কংগ্রেসের পাঁচ কর্মীর বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।


স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, গতকাল গভীর রাতে বেশ কয়েকজন তৃণমূল কর্মী একটি বাড়ির ছাদে নির্বাচনি বৈঠক করছিলেন। অভিযোগ, সেই সময় এক কংগ্রেস কর্মী মদ্যপ অবস্থায় ছাদে উঠে গালিগালাজ শুরু করেন। এনিয়ে দুপক্ষের মধ্যে বিবাদ শুরু হয়। মদ্যপ কংগ্রেস কর্মীকে মারধর করা হয়। সেই খবর পেয়ে আরও কয়েকজন কংগ্রেস কর্মী ঘটনাস্থলে ছুটে আসে। দুপক্ষের মধ্যে ধস্তাধস্তি থেকে সংঘর্ষ শুরু হয়ে যায়। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে ছুটে আসে মালদা থানার পুলিশও।



মহিষবাথানি অঞ্চল তৃণমূল সহ সভাপতি সরাফত আলি জানান, গতকাল রাতে আমাদের নির্বাচনি বৈঠক চলাকালীন এক মদ্যপ চলে আসে। বিষয়টি আমরা পুলিশকে ফোন করে জানাই। পুলিশ ঘটনাস্থলে আসার পরই দেখি, কংগ্রেসের দুষ্কৃতীরা এলাকা ঘিরে ধরেছে। দুষ্কৃতীরা এক পুলিশকর্মীকে মারধরের পাশাপাশি আমাদের কয়েকজন কর্মীকে মারধর করে। আমাদের মহিলা সভানেত্রীকে গাড়ি থেকে নামিয়ে শ্লীলতাহানি করার চেষ্টা করে৷ সমস্ত ঘটনা জানিয়ে আমরা পুলিশে অভিযোগ দায়ের করেছি।


মহিষাবাথানি গ্রামপঞ্চায়েতের কংগ্রেস সদস্য সাবদুল হক জানান, তৃণমূলের লোকজন এখানে রোজ রাতেই মদ আর মাংস খায়৷ গতকাল রাতে স্থানীয় এক বৃদ্ধি জানান, তাঁর ছেলেকে ওরা মারধর করেছে। সকালে গিয়ে বিষয়টি দেখা কথা বললেও ওনার জোর করাতে রাতেই সেখানে যাই। ওরা আমার পরিবারের লোকদেরও মারধর করে। তবে পুলিশ ভালো ভূমিকা নেওয়ায় ওরা সেভাবে আমাদের ওপর হামলা চালাতে পারেনি।


আমাদের মালদা এখন টেলিগ্রামেও। জেলার প্রতিদিনের নিউজ পড়ুন আমাদের অফিসিয়াল চ্যানেলে। সাবস্ক্রাইব করতে ক্লিক করুন

Kommentare


বিজ্ঞাপন

Malda-Guinea-House.jpg

আরও পড়ুন

bottom of page