top of page

বকেয়া থাকায় মৃতদেহ আটকে রাখল নার্সিংহোম, জমি বিক্রি করে বিল মেটালেন স্ত্রী

সংসারের হাল ধরতে ভিনরাজ্যে রাইস মিলের কাজে গিয়েছিলেন। কিন্তু কাজে যোগ দেওয়ার আগেই অসুস্থ হয়ে পড়েন। স্থানীয় লোকজন একটি নার্সিংহোমে ভরতি করেন। অস্ত্রপচারের পরেও শেষ রক্ষা হয়নি। গত বৃহস্পতিবার মৃত্যু হয় ওই শ্রমিকের। সাতদিনের নার্সিংহোম বিল মেটাতে না পারায় মৃতদেহ আটকে রেখে দেয় নার্সিংহোম কর্তৃপক্ষ। বিষয়টি জানতে পেরে পরিবারের লোকজন শেষ সম্বল জমিটুকু বিক্রি করে মৃতদেহ ছাড়িয়ে আনেন।


প্রতীকী ছবি।

চাঁচল ১ নম্বর ব্লকের ধঞ্জনা গ্রামের বাসিন্দা ইলিয়াস আলি। বয়স ৪৫ বছর। পরিবার সূত্রে জানা গিয়েছে, স্ত্রী সহ তিন সন্তানের খরচ জোগাড় করতে সম্প্রতি পাঞ্জাবের একটি রাইস মিলে কাজ করতে যান ইলিয়াস। কিন্তু কাজে যোগ দেওয়ার আগেই পেটের ব্যথায় ভুগতে শুরু করেন তিনি। অবশেষে স্থানীয় লোকজন তাঁকে একটি নার্সিংহোমে ভরতি করেন। সেখানেই তাঁর অস্ত্রোপচার হয়। সাতদিন নার্সিংহোমে চিকিৎসাধীন থাকার পর মৃত্যু হয় ইলিয়াসের। সহকর্মীরা মৃতদেহ আনতে গেলে সম্পূর্ণ বিল না মেটানো হওয়ার পর্যন্ত মৃতদেহ দেওয়া যাবে না বলে সাফ জানিয়ে দেয় নার্সিংহোম কর্তৃপক্ষ। সেই খবর এসে পৌঁছয় পরিবারে। অবশেষে পরিবারের শেষ সম্বল ১৫ কাঠা জমি এক ব্যক্তিকে ৭০ হাজার টাকার বিনিময়ে দিয়ে স্বামীর দেহ ফিরিয়ে আনার ব্যবস্থা করেন স্ত্রী। আজ সকালে ইলিয়াসের কফিন বন্দি দেহ গ্রামে ফিরে আসতেই শোকের ছায়া নেমে আসে পুরো এলাকায়।


আমাদের মালদা এখন টেলিগ্রামেও। জেলার প্রতিদিনের নিউজ পড়ুন আমাদের অফিসিয়াল চ্যানেলে। সাবস্ক্রাইব করতে ক্লিক করুন

বিজ্ঞাপন

Malda-Guinea-House.jpg

আরও পড়ুন

bottom of page