top of page

পুরসভার ফান্ড নেই, চাঁদা তুলে রাস্তা করছেন খোদ কাউন্সিলর

দীর্ঘদিন ধরে আবেদন করেও পাকা রাস্তা হয়নি। অবশেষে চাঁদা তুলে রাস্তার কাজ শুরু করলেন ইংরেজবাজার পুরসভার ২৩ নম্বর ওয়ার্ডের বাসিন্দারা। রাস্তা তৈরিতে স্থানীয় বাসিন্দাদের সাহায্য করেছেন স্থানীয় পুজো কমিটি, সমাজসেবী মানুষ সহ স্থানীয় কাউন্সিলর।


স্থানীয় বাসিন্দাদের অভিযোগ, ৩২ বছর আগে পুরসভার অন্তর্ভুক্তি হলেও এখনও এলাকায় নিকাশি ব্যবস্থা নেই। নেই পাকা রাস্তা। দীর্ঘদিন ধরে আবেদন জানানোর পরও রাস্তা কিংবা নিকাশি নালা কিছুই হয়নি। বাধ্য হয়ে এলাকাবাসী সকলে একত্রিত হয়ে চাঁদা তুলে আজ থেকে পাকা রাস্তার কাজ শুরু করেছেন। এলাকাবাসীকে আর্থিক সাহায্য করেছে স্থানীয় পুজো কমিটিগুলিও। সাহায্যের হাত বাড়িয়েছেন স্থানীয় কাউন্সিলর সহ সমাজসেবী মানুষরাও।



পুরসভার ২৩ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর সুজিত সাহা জানান, বারবার পুরসভাকে বলার পরেও কোন কাজ হয়নি। পুরসভার ফান্ড নেই। তাই কাজ হচ্ছে না। বাধ্য হয়ে গত বছর চাঁদা তুলে ডকপুকুর এলাকার রাস্তা করেছি। এবছর ফের চাঁদা তুলে নেতাজি কলোনি, জাহাজফিল্ড এলাকায় রাস্তা করছি। রাস্তা তৈরির কাজে সকলে সহযোগিতার হাত বাড়িয়েছেন। স্থানীয় পুজো কমিটি, কীর্তন কমিটি, বাউল কমিটি সকলেই সাহায্য করেছেন।


বিজেপি কাউন্সিলর অম্লান ভাদুড়ী জানান,

তৃণমূল পরিচালিত পুরসভার কাছে এটা লজ্জার। একজন তৃণমূল কাউন্সিলর চাঁদা তুলে পুরসভা এলাকার রাস্তা করছেন। পুরসভার যদি রোজগার বেড়ে থাকে, তবে কেন সেই অর্থ সাধারণ মানুষের জন্য খরচ করা হচ্ছে না?

আমাদের মালদা এখন টেলিগ্রামেও। জেলার প্রতিদিনের নিউজ পড়ুন আমাদের অফিসিয়াল চ্যানেলে। সাবস্ক্রাইব করতে ক্লিক করুন

header.all-comments


বিজ্ঞাপন

Malda-Guinea-House.jpg

আরও পড়ুন

bottom of page