top of page

ফরেনসিক দল এল মানিকচকের গুলিবিদ্ধ শিশুর বাড়িতে

এদিন মানিকচকের শিশুর মাথায় গুলি লাগার ঘটনার তদন্তে শিশুর বাড়িতে এল ফরেনসিক বিভাগ। ফরেনসিক বিভাগের আধিকারিক পুলিশ কর্মীদের নিয়ে ঘটনাস্থলে তদন্ত করেন।


গত ২৮ অগস্ট বিজেপি মানিকচক গ্রাম পঞ্চায়েতে টস জিতে বোর্ড গঠন করে। সেদিন প্রধান পদে তৃণমূলের প্রার্থীর দিকে সমর্থন জানিয়েছিলেন বিজেপির জয়ী সদস্যা পুতুল মণ্ডল। এই ঘটনাতেই উত্তপ্ত হয় রাজনৈতিক মহল। পুতুলদেবী ও তাঁর পরিবারের সদস্যরা অভিযোগ জানিয়েছিলেন, তাঁদের বিভিন্নভাবে বিজেপির নেতাকর্মীর হুমকির সামনা করতে হচ্ছিল। ৩০ অগাস্ট বেলা সাড়ে ৩টে নাগাদ বিজেপির কয়েকজন দুষ্কৃতী পুতুলদেবীকে লক্ষ্য করে গুলি চালায়। সেই গুলি লক্ষ্যভ্রষ্ট হয়ে লাগে তাঁর ৩ বছরের ছেলে মৃণালের মাথায়। আশঙ্কাজনক অবস্থায় তাকে প্রথমে নিয়ে যাওয়া হয়েছিল মানিকচক গ্রামীণ হাসপাতালে। সেখান থেকে তাকে রেফার করা হয় মালদা মেডিকেল কলেজে। পরে তাকে শহরের একটি নামি নার্সিং হোমে ভর্তি করা হয়। আজও সে সেখানেই চিকিৎসাধীন।

মানিকচকের এই ঘটনার পর ব্যাপক উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে রাজ্য জুড়ে। এরপরেই ফরেনসিক তদন্তের সিদ্ধান্ত নেয় রাজ্য সরকার। এদিন পুতুলদেবীর বাড়িতে তদন্তে যান ফরেনসিক বিশেষজ্ঞ চিত্রাক্ষ সরকার। সঙ্গে ছিলেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (গ্রামীণ) দীপক সরকার, ডিএসপি (সদর) বিপুল মজুমদার সহ অন্যান্য পুলিশ আধিকারিকরা। তদন্ত করে সংগ্রহ করেন গুলির খোল সহ বেশ কিছু নমুনা। তবে এদিন পুতুলদেবী ও পরিমলবাবু বাড়িতে না থাকায় তাঁদের থেকে বিবরণ সংগ্রহ করতে পারেননি আধিকারিকরা।

ফরেনসিক আধিকারিক চিত্রাক্ষবাবু জানান, তদন্ত শেষ করতে সম্ভবত দিন দশেক সময় লাগবে। তবু তাঁরা চেষ্টা করছেন দ্রুত তদন্ত শেষ করতে। অতিরিক্ত পুলিশ সুপার দীপক সরকার জানান, তদন্তের কাজ শুরু হয়েছে। এদিন ফরেনসিক দল নমুনা সংগ্রহ করেছে।


আমাদের মালদা এখন টেলিগ্রামেও। জেলার প্রতিদিনের নিউজ পড়ুন আমাদের অফিসিয়াল চ্যানেলে। সাবস্ক্রাইব করতে ক্লিক করুন

ভিডিয়োঃ কৃতাঙ্ক

বিজ্ঞাপন

Malda-Guinea-House.jpg

আরও পড়ুন

bottom of page