top of page

গৃহবধূকে খুনের অভিযোগ স্বামীর বিরুদ্ধে

হরিশ্চন্দ্রপুর থানার কোলহা গ্রামে এক গৃহবধূকে খুনের অভিযোগ উঠল তাঁর স্বামীর বিরুদ্ধে। এদিন বিকেলে পুলিশের কাছে জামাইয়ের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন মৃত মহিলার দাদা। ঘটনার তদন্তে নেমেছে পুলিশ। তবে অভিযুক্ত ব্যক্তি পলাতক।


Man charged with wife's murder at Harishchandrapur

বছর কুড়ি আগে মৃত দুলেনা বিবির সাথে একই থানার কোলহা গ্রামের নজরুল ইসলামের বিয়ে হয়। দুলেনা বিবির বাবার বাড়ি হরিশ্চন্দ্রপুর থানারই মহেন্দ্রপুর সংলগ্ন কুশলপুর গ্রামে। নজরুল দীর্ঘদিন হায়দরাবাদে থাকতেন। সেখানে তিনি চুলের ব্যাবসা করতেন। তবে এক বছর আগে তিনি সেখান থেকে চলে আসেন। তাঁদের ১৭ ও ১৫ বছরের দুটি ছেলে রয়েছে।

দুলেনার দাদা রবিউল ইসলামের অভিযোগ, বিয়ের পর কিছুদিন ঠিকঠাক থাকলেও তার পর থেকেই বিভিন্ন কারণে তাঁর বোনের উপর শারীরিক ও মানসিক অত্যাচার শুরু করে নজরুল। এনিয়ে গ্রামে একাধিকবার সালিশি সভা বসেছে। দুজনের বিবাদ মেটানো হয়েছে। কিন্তু হায়দরাবাদ থেকে এলাকায় ফেরার পর নজরুলের অত্যাচার মাত্রা ছাড়ায়। এদিন ভোর সাড়ে ৪টে নাগাদ নজরুল তাঁকে ফোন করে খবর দেয়, তাঁর বোন নাকি ফাঁসি দিয়ে আত্মহত্যা করেছে। খবর পেয়েই বাড়ির লোকজনকে নিয়ে তিনি বোনের শ্বশুরবাড়িতে ছুটে যান। দেখেন, তাঁর বোনের দেহ মৃতদেহ বিছানায় শোওয়ানো রয়েছে। বাড়িতে কেউ নেই। তাঁর দুই ভাগ্নে হায়দরাবাদেই পড়াশোনা করে। তারা এখনও সেখানেই রয়েছে। তাঁরা দুলেনার দেহ পরীক্ষা করে দেখেন, তার শরীরে মারধরের দাগ স্পষ্ট। গলাতেও দাগ রয়েছে। তাঁরা নিশ্চিত, পারিবারিক বিরোধের জেরে নজরুল দুলেনাকে শ্বাসরোধ করে খুন করে এলাকা থেকে পালিয়ে গিয়েছে। এই মর্মে এদিন তিনি হরিশ্চন্দ্রপুর থানায় নজরুলের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।

হরিশ্চন্দ্রপুর থানার পুলিশ জানিয়েছে, অভিযোগের ভিত্তিতে একটি খুনের মামলা রুজু করে তদন্ত শুরু করা হয়েছে। অভিযুক্ত নজরুলের খোঁজ চলছে।


আমাদের মালদা এখন টেলিগ্রামেও। জেলার প্রতিদিনের নিউজ পড়ুন আমাদের অফিসিয়াল চ্যানেলে। সাবস্ক্রাইব করতে ক্লিক করুন

Comentarios


বিজ্ঞাপন

Malda-Guinea-House.jpg

আরও পড়ুন

bottom of page