top of page

মহানন্দার জলোচ্ছ্বাসে চিন্তিত শহর

গত কয়েকদিন ধরেই মহানন্দার জল ক্রমাগত বাড়ছে৷ এদিন দুপুর ১২টায় মহানন্দা বইছে ২৩.০৫ মিটার উচ্চতায়৷ যা নদীর সর্ব্বোচ্চ বিপদসীমা ২১.৭৫ মিটার থেকে ১.৩০ মিটার বেশি৷ নদীর জল ঢুকে পড়েছে মালদা শহরের বিভিন্ন এলাকায়৷


গতকাল রাতে মহানন্দা পুরাতন মালদা পৌরসভা সংলগ্ন একটি রাস্তা কেটে দিয়েছে৷ রাতেই ওই রাস্তা দিয়ে চলাচল বন্ধ হয়ে গিয়েছে৷ পৌরসভার চেয়ারম্যান কার্তিক ঘোষ জানিয়েছেন, মহানন্দার জলের চাপ সহ্য করতে না পেরে একটি কালভার্টের গেট ভেঙে যায়৷ সেই জল পৌর ভবনের পিছন দিকের একটি রাস্তা কেটে দেয়৷ এর ফলে ওই রাস্তা দিয়ে শর্বরী এলাকার যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে৷ এছাড়া সদরঘাট এলাকার একটি অংশে নদীর জল বাঁধ চুঁইয়ে ভিতরে ঢুকতে শুরু করেছিল৷ সেখানেও পৌরসভার পক্ষ থেকে বালির বস্তা ফেলে বাঁধ মেরামতির কাজে হাত দেওয়া হয়েছে৷


মহানন্দার জল ক্রমাগত বাড়ছে

ছবিঃ মিসবাহুল হক


এদিন সকালে নতুন করে প্লাবিত হয়েছে ইংরেজবাজার পৌরসভার ২১ নম্বর ওয়ার্ডের বিস্তীর্ণ এলাকা৷ নৌকো চলাচল শুরু করেছে সেই এলাকায়৷ জলে ডুবেছে পৌরসভার ১ ও ২ নম্বর ওয়ার্ডের বিস্তীর্ণ অংশও৷ এই মুহূর্তে মহানন্দার জলে বানবাসি হয়েছেন প্রায় ২৫ হাজার মালদা শহরবাসী৷ ইতিমধ্যে মালদা শহরের ৩টি সুকলে সরকারি ত্রাণশিবির খোলা হয়েছে৷ খোলা হয়েছে কিছু অস্থায়ী ত্রাণশিবিরও৷ সুকান্ত পল্লিতে ৬টি জায়গায় অস্থায়ী ত্রাণশিবির খোলা হয়েছে৷ পৌরসভার পক্ষ থেকে সেই সব শিবিরে রান্না করা খিচুড়ি ও আলোর ব্যবস্থা করা হয়েছে৷ এদিন সকালে ওই এলাকা পরিদর্শন করেন পৌরসভার ভাইস চেয়ারম্যান দুলাল সরকার৷


আমাদের মালদা এখন টেলিগ্রামেও। জেলার প্রতিদিনের নিউজ পড়ুন আমাদের অফিসিয়াল চ্যানেলে। সাবস্ক্রাইব করতে ক্লিক করুন

বিজ্ঞাপন

Malda-Guinea-House.jpg

আরও পড়ুন

bottom of page