ডালে ডালে বোল বার্তা

ডালে ডালে বোল বার্তা


৩২৭ খ্রীষ্টপূর্বে সিন্ধু উপত্যকায় আলেকজান্ডারের নজরে পড়েছিল আমবাগান৷ তখনই রসাল এই ফলের মহিমা উপলব্ধি করতে পেরেছিলেন তিনি৷১৩৩০ খ্রীষ্টাব্দে বিখ্যাত কবি আমির খুসরো আম নিয়ে লিখে ফেলেছিলেন একটি কবিতাই৷ নিজের রাজত্বকালে আকবর তাঁর বাগানে এক লক্ষ আমগাছ লাগিয়েছিলেন৷ সুতরাং সংস্কৃত আম্র যে কীভাবে সেই প্রাচীনকাল থেকে মানুষের মনে জায়গা করে নিয়েছে, তা বোধহয় আর কাউকে বলে দিতে হবে না৷ প্রাচীন সেই ফলের চাষ এখনও স্বমহিমায়৷ ইন্দো-বার্মা রিজিয়নই এই ফলের জন্মভূমি বলে বিজ্ঞানীদের ধারণা৷তবে বর্তমানে পৃথিবীর অনেক দেশেই আমের চাষ হয়৷এদেশের অন্ধ্রপ্রদেশ, পশ্চিমবঙ্গ, কর্ণাটক, বিহার, কেরালা, উত্তরপ্রদেশ, পাঞ্জাব, উত্তরাখণ্ড, ঝাড়খণ্ড, হরিয়ানা, মহারাষ্ট্র ও গুজরাটেই মূলত আমচাষ হয়ে থাকে৷আম গ্রীষ্মকালীন ফল৷যদিও তার উৎপাদনের শুরু হয় শীতের শেষ থেকেই৷


কিন্তু এবার শীত বিদায় নিতে নিতেও যেন নিচ্ছে না৷ শীতের দীর্ঘ ইনিংস কেড়ে নিতে শুরু করেছে এই জেলার আমচাষিদের ঘুমের স্থায়িত্ব৷

মাঘ মাসের মাঝামাঝিতেও যদি দিনে গরমের ভাব না হয়, তবে তা নিশ্চিতভাবে আমচাষের পক্ষে দুঃসংবাদ৷ এখনও সেভাবে জেলায় শুরু হয়নি পশ্চিমা বাতাসের দাপট৷এই দুইয়ের স্পর্শেই ঘুম ভাঙে আমগাছের মুকুলের৷তবে এখনও কিছুটা সময় রয়েছে৷সেই আশাতেই বেঁচে রয়েছেন আমচাষিরা৷ আম মালদা জেলার প্রধান অর্থকরী ফসল৷বহুল ব্যবহারে ক্লিষ্ট একটি বাক্য৷কিন্তু সেই বাক্যই কার্যত বাঁচিয়ে রেখেছে জেলার অর্থনীতিকে এবং সেই অর্থনীতির জোরেই প্রতিবছর একটু একটু করে বাড়ছে আম চাষের জমির পরিমাণ৷ জেলা উদ্যানপালন দপ্তরের পরিসংখ্যান অনুযায়ী, গত বছর জেলার মোট ৩০ হাজার ৪৪৮ হেক্টর জমিতে আম চাষ হয়েছিল৷ এবছর চাষযোগ্য জমির পরিমাণ আরও কিছুটা বৃদ্ধি পেতে পারে৷ বর্তমানে বিজ্ঞানসম্মতভাবে আম চাষের পরিমাণ বাড়ায় তথাকথিত অফ ইয়ার আর অন ইয়ারের পার্থক্য কমতে শুরু করেছে৷

জেলা উদ্যালপালন দপ্তরের উপ-অধিকর্তা রাহুল চক্রবর্তী জানাচ্ছেন, শীতের শেষের দিকে জেলার বিভিন্ন জায়গায় আমের মুকুল উঁকি দিতে শুরু করেছে৷ তবে সমস্ত গাছে মুকুল আসতে এখনও দেরি রয়েছে৷গরম বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে পশ্চিমা বাতাস শুরু হলে মুকুল বেরোনোর পরিমাণও বাড়বে৷ সাধারণত ২২ থেকে ৩২ ডিগ্রি সেলসিয়াস মুকুল বেরোনোর পক্ষে উপযুক্ত তাপমাত্রা৷ গত বছর জেলায় ২ লক্ষ ৭০ হাজার মেট্রিক টন আম উৎপাদন হয়েছিল৷এবার উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা এখনও ঠিক হয়নি৷মুকুলের অবস্থা দেখার পরেই সেই লক্ষ্যমাত্রা ঠিক করা হবে৷রাহুলবাবু আরো জানান, এখনও পর্যন্ত আবহাওয়া আম চাষের পক্ষে উপযুক্ত রয়েছে৷তাই আশা করা যায়, এবছর জেলায় আমের উৎপাদন গতবারের উৎপাদনকে ছাড়িয়ে যাবে৷


#MaldaMango

হেডলাইন

প্রতিবেদন

কোয়রান্টিন সেন্টারে জন্মদিনের পার্টি, নজির গড়ল দীপান্বিতা

জন্মদিনের অনুষ্ঠানে বন্ধুদের বাড়িতে ডেকে খাওয়ানো নয়, পরিযায়ী শ্রমিকদের মধ্যে খাবার বিতরণ করে নজির সৃষ্টি করল ষষ্ঠ শ্রেণির এক ছাত্রী। গত...

বিজ্ঞাপন

ফলো করুন
  • Facebook
  • Instagram
  • Twitter
  • YouTube
  • Pinterest

সব খবর ইনবক্সে!

প্রতিদিন খবরের আপডেট পেতে সাবস্ক্রাইব করুন

Aamader Malda Worldwide, the only media of your hometown and its thoughts. Here you can share and express your views and thoughts and you'll get here the essence of MALDAIYA CULT...

You can reach us via email or phone.  P +91 3512-260260  E response@aamadermalda.in

  • Facebook
  • Twitter
  • YouTube
  • Pinterest
  • Instagram
  • RSS

Copyright © 2020 Aamader Malda. All Rights Reserved.