top of page

রহস্যের কিনারা করল পুলিশ, ধানতলায় অগ্নিদগ্ধের ঘটনায় গ্রেফতার যুবক

অবশেষে ছয় দিন পর পরিচয় জানা গেল ইংরেজবাজারের ধানতলায় অগ্নিদগ্ধ যুবতির। এই ঘটনায় গ্রেফতার করা হয়েছে এক যুবককে। ধৃত যুবককে আগামীকাল মালদা জেলা আদালতে পেশ করা হবে।


উল্লেখ্য, গত ৫ ডিসেম্বর ইংরেজবাজারের ধানতলা সংলগ্ন একটি আমবাগান থেকে এক যুবতির অগ্নিদগ্ধ মৃতদেহ উদ্ধার হয়। ৬ দিন পর যুবতির নাম পরিচয় জানা যায়। আজ সকালে মৃত যুবতিকে মালদা মেডিকেল কলেজের মর্গে শনাক্ত করে পরিবারের লোকজন। ঘটনার তদন্তে নেমে এক যুবককে গ্রেফতার করে ইংরেজবাজার থানার পুলিশ। মৃত যুবতির নাম ঝুমা দে (২৫)। বাড়ি শিলিগুড়ির অম্বিকানগর এলাকায়। কয়েকবছর আগে ঝুমাদেবীর বিবাহবিচ্ছেদ হয়ে যায়। ধৃত যুবকের নাম বাপন ঘোষ। জানা গেছে, বছর তিনেক আগে সে শিলিগুড়িতে একটি পপকর্ন ফ্যাক্টরিতে কাজে গিয়েছিল৷ সেই ফ্যাক্টরিতেই কাজ করতেন ঝুমা৷তখন থেকেই তাদের মধ্যে পরিচয়৷ সেই পরিচয় পরে প্রেমের সম্পর্কে গড়ায়৷ ছোটনের সঙ্গে দেখা করতে মাঝেমধ্যেই মালদায় আসতেন ঝুমা৷



জেলা পুলিশ সুপার অলোক রাজোরিয়া জানান, গত ৫ ডিসেম্বর ইংরেজবাজারের ধানতলায় এক যুবতির মৃতদেহ উদ্ধার হয়। মৃত যুবতির নাম ঝুমা দে। তিনি শিলিগুড়ির বাসিন্দা ছিলেন। ইংরেজবাজারের কোতওয়ালির শাহজালালপুরের বাসিন্দা বাপন ঘোষের সঙ্গে তাঁর দু’বছর ধরে সম্পর্ক ছিল। এই সম্পর্কের কারণে বাপনের পরিবারে অশান্তি চলছিল। গত ২ ডিসেম্বর ওই যুবতি বাড়ি থেকে মালদায় আসেন। গত ৫ তারিখ তাঁর মৃতদেহ উদ্ধার হয়। ঘটনার তদন্তে নেমে বাপন ঘোষ ওরফে ছোটন নামে যুবককে গ্রেফতার করা হয়। বাপনের স্ত্রীকে আটক করা হয়েছে। দুজনকেই জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। ধৃত যুবককে আগামীকাল জেলা আদালতে পেশ করা হবে। এই ঘটনায় আরও কেউ জড়িত রয়েছে কিনা তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।


প্রতিদিন মালদার টাটকা নিউজ হোয়াটস্ অ্যাপে পেতে ক্লিক করুন

Comments


বিজ্ঞাপন

Malda-Guinea-House.jpg

আরও পড়ুন

bottom of page