top of page

বরকতদার জন্মদিন যেন মিলন মেলা, শ্রদ্ধার্ঘ্য নিবেদন কংগ্রেস ও তৃণমূলের

জেলার বেশিরভাগ রাজনীতিবিদের হাতেখড়ি প্রয়াত বরকত গনিখান চৌধুরির হাতে। আজ তাঁর ৯৬ তম জন্মদিন। প্রতিবছর এই দিনটি উদযাপন করে কংগ্রেস। তবে শুধু কংগ্রেস নয়, আজ কোতোয়ালি ভবনে দেখা গেল একাধিক তৃণমূল নেতানেত্রীদেরও।


কংগ্রেসি গড় হিসেবে পরিচিত মালদা তৃণমূলের শক্ত ঘাঁটি। কংগ্রেসের অস্তিত্ব টিকিয়ে রেখেছেন একমাত্র দক্ষিণ মালদার সাংসদ আবু হাসেম খান চৌধুরি। জন্মদিনে বরকতদাকে শ্রদ্ধা জানিয়ে তিনি জানান, প্রতি বছরই বরকতদার জন্মদিন পালন করা হয়৷ আজও বড়ো করে জন্মদিন পালন করা হচ্ছে। মালদায় কংগ্রেস ছিল, থাকবে। শাসকদলের কিছুটা সুবিধে নিতে অনেকেই এখন তৃণমূলে গিয়েছেন। তবে মন থেকে তাঁরা এখনও কংগ্রেসি। ঠিকমতো ভোট হলে পঞ্চায়েত নির্বাচনে মানুষ কংগ্রেসেরই পাশে থাকবে৷ কিন্তু এই সরকারের আমলে ভোট ঠিক হওয়া নিয়ে যথেষ্ট প্রশ্ন রয়েছে। বাম আমলে অন্তত একটা নীতি ছিল। সেই নীতি মেনে ভোট হত। এই সরকারের আমলে সেসব আর দেখা যায় না।


জেলা কংগ্রেসের সাধারণ সম্পাদক মোত্তাকিন আলম জানান, আসন্ন পঞ্চায়েত নির্বাচনেও বরকতদাকে সামনে রেখে মানুষের কাছে পৌঁছে যাবে কংগ্রেস৷ গনি মিথ শেষ হয়ে গিয়েছে বলে তৃণমূলের অনেকে মন্তব্য করছেন। অথচ তাঁরাই বরকতদার স্বপ্নপূরণ করার কথা বলছেন৷ তাঁরাই বরকতদার আশীর্বাদ নিতে আসেন৷



আজ সকালে কোতোয়ালি ভবনে বরকতদাকে শ্রদ্ধা জানাতে যান রাজ্য তৃণমূলের সাধারণ সম্পাদক কৃষ্ণেন্দু নারায়ণ চৌধুরি, মালদা জেলার তৃণমূলের শীর্ষস্তরের নেতা দুলাল সরকার, নরেন্দ্রনাথ তেওয়ারি সহ অন্যান্যরা। সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে কৃষ্ণেন্দু বলেন, তাঁদের রাজনৈতিক জীবন বরকতদার হাত ধরে শুরু৷ আজ তাঁরা যে জায়গায় রয়েছেন তার সম্পূর্ণ অবদান বরকতদার। একসময় তাঁরা সকলে কংগ্রেস করতেন৷ পরে অন্য দলে যোগদান করেন। তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও বরকতদাকে ভীষণ শ্রদ্ধা করেন৷ আজ বরকতদাকে জন্মদিবসে কোনোরকম রাজনৈতিক মন্তব্য করবেন না তিনি।




আমাদের মালদা এখন টেলিগ্রামেও। জেলার প্রতিদিনের নিউজ পড়ুন আমাদের অফিসিয়াল চ্যানেলে। সাবস্ক্রাইব করতে ক্লিক করুন

বিজ্ঞাপন

Malda-Guinea-House.jpg

আরও পড়ুন

bottom of page