top of page

পড়ুয়াদের স্কুলে ঢুকতে বাধা বনধ সমর্থকদের

বাম-কংগ্রেসের ছাত্র যুব সংগঠনের নবান্ন অভিযানে পুলিশের লাঠিচার্জের ঘটনার প্রতিবাদে আজ রাজ্যজুড়ে ১২ ঘণ্টার বনধের মিশ্র প্রভাব পড়ল জেলায়। যান চলাচল স্বাভাবিক থাকলেও রাস্তায় তুলনামূলক যাত্রীর সংখ্যা ছিল অনেক কম। পাশাপাশি মালদা শহরের বেশিরভাগ দোকানপাট ছিল বন্ধ। সকাল থেকেই পিকেটিং-এ নেমে পড়ে বাম-কংগ্রেস সমর্থকরা। বেশ কিছু টোটো থেকে যাত্রীদের নামিয়ে ঘুরিয়ে ফেরত পাঠানো হয়।



অন্যদিকে, রাজ্য জুড়ে আজ থেকে শুরু হয়েছে স্কুল। স্কুলের প্রথম দিনেই বনধ থাকায় সমস্যায় পড়তে হয় পড়ুয়াদের। বনধের সমর্থনে স্কুল বন্ধ করার চেষ্টাকে কেন্দ্র করে উত্তেজনা চাঁচলে। বনধের সমর্থকরা চাঁচল সিদ্ধেশ্বরী ইন্সটিটিউশনে গেলে পুলিশ তাদের বাধা দেয়। দীর্ঘক্ষণ বচসার পরে পুলিশের অনুরোধে শিক্ষকদের স্কুলে ঢুকতে দেন সমর্থকরা। কিন্তু ফের পড়ুয়াদের ইন্সটিটিউশনে প্রবেশে বাধা দেয় সমর্থকরা। এরপরে বিশাল পুলিশবাহিনী ছুটে এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।




বামফ্রন্টের জেলা সম্পাদক অম্বর মিত্র জানান, বৃহস্পতিবার নবান্ন অভিযানে তাঁদের কর্মীদের ওপর নির্মমভাবে লাঠিচার্জ করে পুলিশ। বেশ কয়েকজন কর্মী গুরুতরভাবে আহত হয়েছে। এরই প্রতিবাদে আজ তাঁরা রাজপথে।


আমাদের মালদা এখন টেলিগ্রামেও। জেলার প্রতিদিনের নিউজ পড়ুন আমাদের অফিসিয়াল চ্যানেলে। সাবস্ক্রাইব করতে ক্লিক করুন

বিজ্ঞাপন

Malda-Guinea-House.jpg

আরও পড়ুন

bottom of page