top of page

রাজ্য সেরা রেশম সুতো প্রস্তুতকারক কালিয়াচকের আনসারুল

রাজ্যের সেরা রেশম সুতো উৎপাদক নির্বাচিত হলেন কালিয়াচকের আনসারুল শেখ। দিল্লির বিজ্ঞান ভবনে আগামী ২০ সেপ্টেম্বর সেই পুরস্কার হাতে পেতে চলেছেন তিনি। খুশির হাওয়া জেলার রেশম শিল্পতে জড়িত চাষি-ব্যবসায়ী থেকে শুরু করেছে প্রশাসনিক মহলে।


গত ৩০ বছর ধরে রেশম সুতো তৈরির কাজের সঙ্গে যুক্ত কালিয়াচক-১ ব্লকের শেরশাহী গ্রামের বোসনিটোলার বাসিন্দা আনসারুল শেখ। তিনি জানান, রাজ্যের সেরা সুতো উৎপাদক হিসেবে তাঁকে নির্বাচিত করা হয়েছে। এনিয়ে তিনি রেশম দফতরের একটি চিঠি পেয়েছেন। আগামী ২০ তারিখ সেই পুরস্কার তাঁর হাতে তুলে দেওয়া হবে। তিনি আরও জানান, প্রথমে সাধারণ মেশিন ব্যবহার করে রেশম কাটাই করে সুতো তৈরির কাজ করতেন তিনি। পরবর্তীতে রেশম দফতরের সহযোগিতায় উন্নত মানের রেশম সুতো তৈরির কাজ শুরু করেন তিনি। বিভিন্নভাবে সরকারি সহায়তায় এখন বেঙ্গালুরুর মানের সুতো তিনি তৈরি করতে পারছেন। তবে চিনা রেশম সুতো আরও উন্নতমানের। সেই মানের সুতো তৈরির জন্য আরও সরকারি সহযোগিতা প্রয়োজন।


In-state-Ansarul-of-Kaliachak-produces-best-silk-yarn
রাজ্যের সেরা সুতো উৎপাদক আনসারুল শেখ

উল্লেখ্য, রাজ্য জুড়ে রেশম সুতো তৈরির জন্য কালিয়াচকের নাম রয়েছে। কয়েক দশক আগে মালদার রেশমের সুতোর তেমন চাহিদা ছিল না। তবে গত দু’দশকে রেশম দফতরের উদ্যোগে জেলার রেশম শিল্প এখন বেশ নাম করেছে। সরকারের পক্ষ থেকে রেশম শিল্পে জড়িতদের উন্নতমানের মেশিন ও প্রয়োজনীয় যন্ত্রপাতি সরবরাহ করা হয়। তবে চিনা রেশম সুতোর সঙ্গে টেক্কা দিতে আরও সরকারি সাহায্যের প্রয়োজন আছে বলে জানিয়েছেন রেশম শিল্পের সঙ্গে যুক্তরা।




আমাদের মালদা এখন টেলিগ্রামেও। জেলার প্রতিদিনের নিউজ পড়ুন আমাদের অফিসিয়াল চ্যানেলে। সাবস্ক্রাইব করতে ক্লিক করুন

বিজ্ঞাপন

Malda-Guinea-House.jpg

আরও পড়ুন

bottom of page