top of page

বন্যায় ১,৫০০ হেক্টর জমির ফসল নষ্ট

জেলায় বন্যা পরিস্থিতি অব্যাহত। বানভাসিদের অভিযোগ এখনও সব জায়গায় সরকারিভাবে ত্রাণ সামগ্রী পৌঁছায়নি। মালদা জেলার কালিয়াচক ৩ ব্লক, মানিকচক ও রতুয়া ১ ব্লকের বেশ কয়েকটি গ্রামে জল ঢুকেছে। ত্রাণ না মেলায় মানিকচকের রামনগর, ডোমহাট, নারায়ণপুরে মানুষের মধ্যে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। এদিকে, ক্রমাগত জল বাড়ছে গঙ্গা, ফুলহর ও মহানন্দার। মানিকচকের পর রতুয়া ও কালিয়াচকেও দিনের পর দিন জল বাড়ছে। বেশ কিছু আইসিডিএস কেন্দ্রেও জল ঢুকেছে। কাটতে শুরু করেছে বেশ কিছু রাস্তা।



অন্যদিকে, পুজোর আগে সমস্যায় পড়েছেন কৃষিজীবীরা। ইতিমধ্যেই মানিকচকের ১,৫০০ হেক্টর জমির ফসল নষ্ট হয়েছে বলে কৃষি দপ্তর সূত্রে জানা গিয়েছে। পাট, কলাই সহ নানান সবজি বন্যার জলে তলিয়ে গিয়েছে। চাষিদের দাবি, বিভিন্ন আর্থিক প্রতিষ্ঠান থেকে ঋণ নিয়ে চাষ করেছিলেন তাঁরা। কিন্তু বন্যায় তাঁদের সমস্ত ফসল নষ্ট হয়ে গিয়েছে। এখন তাঁরা সরকারি সাহায্যের দিকে তাকিয়ে।


কৃষি দপ্তরের উপ অধিকর্তা (প্রশাসন) অশোক মোহন্ত জানান, মানিকচকের সহকারী কৃষি অধিকর্তার কাছ থেকে ফসলের ক্ষয়ক্ষতি সম্পর্কিত একটি রিপোর্ট জমা পড়েছে। রিপোর্ট অনুযায়ী প্রায় ১,২০০ হেক্টর জমিতে উৎপাদিত কলাই নষ্ট হয়েছে। ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে প্রায় ২৫০ হেক্টর জমির শাক-সবজিও। ফসলের ক্ষয়ক্ষতির আর্থিক মূল্য নির্ধারণ করতে আরও সময় প্রয়োজন।


জেলাশাসক জানিয়েছেন, বন্যা কবলিত এলাকাগুলিতে ত্রাণ পাঠানোর কাজ চলছে। পাঠানো হয়েছে মেডিকেল টিমও। প্রশাসনের তরফ থেকে বন্যা কবলিত এলাকাগুলি নিয়মিত পরিদর্শন করা হচ্ছে।


ছবিঃ মিসবাহুল হক

বিজ্ঞাপন

Malda-Guinea-House.jpg

আরও পড়ুন

bottom of page