top of page

শ্লীলতাহানির অভিযোগ বিজেপি নেতার বিরুদ্ধে

হোলি উৎসবে রং দেওয়ার অছিলায় গৃহবধূকে শ্লীলতাহানির অভিযোগ বিজেপি নেতার বিরুদ্ধে। ঘটনাটি ঘটেছে মালদার হরিশ্চন্দ্রপুর এলাকায়। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে হরিশ্চন্দ্রপুর এলাকার রাজনৈতিক মহলে ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে।


অভিযুক্ত বিজেপি কর্মী সঞ্জয় দাস, ৪৬ নম্বর হরিশ্চন্দ্রপুর বিধানসভার যুব মোর্চার কো-কনভেনরেরর দায়িত্বে রয়েছেন। নির্যাতিতা মহিলার অভিযোগ, সোমবার সন্ধেয় সঞ্জয় দাস ও তার এক সঙ্গী মদ্যপ অবস্থায় ওই মহিলার বাড়িতে ঢুকে পড়েন। ওই সময় বাড়িতে একা ছিলেন নির্যাতিতা মহিলা। বাড়িতে ঢুকে তারা জোর করে ওই মহিলার গায়ে রং দেয়। শুধু তাই নয়, তারা মহিলার পরনের কাপড় ধরেও টানাটানি করে বলে অভিযোগ। মহিলার চিৎকারে ভয় পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যায় সঞ্জয় ও তার সঙ্গী। যাওয়ার সময় ওই মহিলাকে হুমকিও দেওয়া হয় বলে অভিযোগ। আজ ওই নির্যাতিতা মহিলা সমস্ত ঘটনা জানিয়ে পুলিশে অভিযোগ দায়ের করেছেন। অভিযোগের ভিত্তিতে পুলিশ ওই বিজেপি নেতাকে আটক করে।


Harishchandrapur BJP leader accused of molesting housewife
আজ ওই নির্যাতিতা মহিলা সমস্ত ঘটনা জানিয়ে পুলিশে অভিযোগ দায়ের করেছেন। প্রতীকী ছবি

হরিশ্চন্দ্রপুর ১ ব্লকের তৃণমূল কংগ্রেস সভাপতি মানিক দাস বলেন, বিজেপির ওই নেতা যা করেছেন তা বাংলার সংস্কৃতি নয়, এরকম দেখা যায় উত্তরপ্রদেশ, বিহারে। এই সব নোংরামো হরিশ্চন্দ্রপুরে বিজেপি আমদানি করছে। ২৬ এপ্রিল মানুষ ভোটবাক্সে এর জবাব দেবে।



বিজেপির নেতা কিষান কেডিয়া বলেন, এটা সম্পূর্ণ সাজানো ঘটনা। এরকম কোনো ঘটনা ঘটেনি। বিজেপিকে বদনাম করতেই মিথ্যে অভিযোগ করা হয়েছে। আমরা পুরো ঘটনার তদন্ত দাবি করেছি।




হরিশ্চন্দ্রপুর থানার আইসি সঞ্জয় কুমার দাস জানান, অভিযোগ পেয়েছি। ঘটনাটি তদন্ত করে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।


আমাদের মালদা এখন টেলিগ্রামেও। জেলার প্রতিদিনের নিউজ পড়ুন আমাদের অফিসিয়াল চ্যানেলে। সাবস্ক্রাইব করতে ক্লিক করুন

বিজ্ঞাপন

Malda-Guinea-House.jpg

আরও পড়ুন

bottom of page