top of page

ব্যবসায়ীর ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার, তদন্তে পুলিশ

শোওয়ার ঘর থেকে এক ব্যক্তির ঝুলন্ত মৃতদেহ উদ্ধারকে কেন্দ্র করে চাঞ্চল্য ছড়াল চাঁচলের মহানন্দপুর গ্রামপঞ্চায়েতের দৈভাত্তা গ্রামে। মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মালদা মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে পাঠিয়ে ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।



মৃত ব্যক্তির নাম পালানু প্রামাণিক (৪১)। বাড়ি মহানন্দপুর গ্রামপঞ্চায়েতের দৈভাত্তা গ্রামের। পালানু পেশায় পোল্ট্রি ব্যবসায়ী। স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, গ্রামে তিনি পোল্ট্রির ব্যাবসা করতেন। গ্রামের বাড়ির পাশাপাশি মালদা টাউনে তাঁর একটি বাড়ি রয়েছে। সেখানে তাঁর স্ত্রী ও ছেলেমেয়েরা থাকতেন। গ্রামের বাড়িতে মা ও ভাইয়েরা রয়েছে। আজ সকালে ডাকাডাকি করে পালনুর সাড়া শব্দ না পাওয়ায়, জানলা দিয়ে ঝুলন্ত মৃতদেহ দেখতে পান পরিবারের লোকজন। চিৎকারে প্রতিবেশীরা ছুটে এসে দরজা ভেঙে মৃতদেহটি উদ্ধার করেন। খবর পেয়ে মৃতদেহটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মালদা মেডিকেলে পাঠায় চাঁচল থানার পুলিশ।


মৃতের স্ত্রী সাবিত্রী প্রামাণিক জানান, ছেলেমেয়েদের পড়াশোনার জন্য মালদায় থাকেন তিনি। খবর পেয়ে সকালে ছুটে এসেছিলেন। কী কারণে স্বামী আত্মঘাতী হলেন তা বুঝে উঠতে পারছেন না তিনি।


মৃতের প্রতিবেশী বুদ্ধদেব সরকার বলেন, সকালে শুনলাম বাড়ির পাশে প্রতিবেশী পালানু প্রামাণিক আত্মঘাতী হয়েছেন। আমরা তড়িঘড়ি করে দেখো উদ্ধার করে চাঁচল সুপারস্পেশালিটি হাসপাতালে নিয়ে আসে কিন্তু হাসপাতালে কর্তব্যরত চিকিৎসকরা তাকে মৃত বলে ঘোষণা করেন।



পুলিশ জানায় মৃত্যুর কারণ জানতে মৃতদেহটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মালদা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। তবে খুন না আত্মহত্যা তা খতিয়ে দেখছে পুলিশ।


আমাদের মালদা এখন টেলিগ্রামেও। জেলার প্রতিদিনের নিউজ পড়ুন আমাদের অফিসিয়াল চ্যানেলে। সাবস্ক্রাইব করতে ক্লিক করুন

Comments


বিজ্ঞাপন

Malda-Guinea-House.jpg

আরও পড়ুন

bottom of page