top of page

সোনার চেন হারিয়ে বকুনির ভয়ে চরম সিদ্ধান্ত যুবতীর

মা-বাবার বকুনি থেকে বাঁচতে গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যার পথ বেছে নিলেন গৌড় মহাবিদ্যালয়ের ছাত্রী। সুইসাইড নোটে এমনটাই লিখেছিলেন ২১ বছরের ওই ছাত্রী। এই ঘটনায় মৃতদেহটিকে ময়নাতদন্তে পাঠিয়ে অস্বাভাবিক মৃত্যুর মামলা করে তদন্ত শুরু করেছে মালদা থানার পুলিশ।


Gour College student commits suicide
সোনার চেন হারিয়ে বকুনির ভয়ে চরম সিদ্ধান্ত যুবতীর

আত্মঘাতী ছাত্রীর নাম মান্টি রায় (২১)৷ বাড়ি ওল্ড মালদার মঙ্গলবাড়ির সামুনডাই কলোনিতে। স্থানীয় গৌড় মহাবিদ্যালয়ের ছাত্রী ছিলেন তিনি৷এই বছরই অনার্স নিয়ে বিএ ফাইনাল ইয়ারের পরীক্ষা দিয়েছিলেন তিনি। জানা গেছে, সম্প্রতি মান্টিকে একটি সোনার চেন কিনে দেন তাঁর বাবা বাপ্পা রায়৷ মান্টি সেই চেনটি হারিয়ে ফেলেন৷ চেন হারানোর জন্য বাবা-মা বকুনি দেবেন, এই ভয়ে গতকাল রাতে গলায় শাড়ি জড়িয়ে সিলিং ফ্যানে ঝুলে আত্মহত্যা করেন তিনি৷ পরে পরিবারের তাঁকে উদ্ধার করে মালদা মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসকরা মান্টিকে মৃত বলে ঘোষণা করেন৷



মান্টির এক দাদা জানান, সোনার চেন হারিয়ে ফেলেছিল বোন। বাবা-মায়ের বকাবকির ভয়েই আত্মহত্যা করেছে মান্টি৷ মান্টির থেকে পাওয়া সুইসাইড নোটে সেকথা লেখা রয়েছে৷ এই ঘটনার ফলে গোটা এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে। এলাকাবাসীরা জানায়, যুবতী ওই এলাকায় খুব নম্র স্বভাবের মেয়ে বলে পরিচিত ছিল। শুধুমাত্র বকুনির ভয়ে এই রকম সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলবে তা কেউ ভাবতে পারেনি।

Comentários


বিজ্ঞাপন

Malda-Guinea-House.jpg

আরও পড়ুন

bottom of page