top of page

দাদনে যেতে নিমরাজি যুবকের বাড়িতে আগুন, পথ অবরোধ

গভীররাতে আগুনে ভস্মীভূত হয়েছে এক দিনমজুরের ঘর। অভিযোগ দাদনে যেতে অস্বীকার করায় ঠিকাদার সংস্থার লোকজন ওই শ্রমিকের বাড়িতে আগুন ধরিয়ে দিয়েছে। অভিযুক্তদের গ্রেফতারের দাবিতে হরিশ্চন্দ্রপুর রেলস্টেশন সংলগ্ন রাস্তা অবরোধ করে স্থানীয় বাসিন্দারা। ঘণ্টা তিনেকের অবরোধের পরে ঘটনাস্থলে পৌঁছে অবরোধকারীদের দোষীদের গ্রেফতারের আশ্বাস দিয়ে অবরোধ তুলে দেয় পুলিশ। গোটা ঘটনাকে কেন্দ্র করে চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে হরিশ্চন্দ্রপুরে।


ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের গৃহবধূ শান্তি ওরাও জানান, গতকাল রাত বারোটা নাগাদ আমি বউমার চিৎকার শুনতে পেয়ে ঘরের বারান্দায় ছুটে আসি। দেখতে পাই বাইরে থেকে আমাদের ঘরের দরজা লাগিয়ে দেওয়া হয়েছে। ঘরের চালে আগুন লাগানো হয়েছে। মাটির দেওয়াল থেকে পেট্রোলের গন্ধ পাওয়া যাচ্ছিল। চিৎকারে প্রতিবেশীরা এসে দরজা ভেঙে আমাদের উদ্ধার করে। আমাদের অনুমান, স্থানীয় এক ঠিকাদার আমাদের বাড়িতে আগুন লাগিয়েছে। আমার ছেলে বিজয় ওরাও ওই ঠিকাদারের কাছে দাদনে যাওয়ার জন্য অগ্রিম ছয় হাজার টাকা নিয়েছিল। ছেলে পরে দাদনে যেতে অস্বীকার করে এবং টাকা ফেরত দিতে চায়। কিন্তু ওই ঠিকাদার ছেলেকে দাদনে যাওয়ার জন্য চাপ দিতে থাকে। সমস্ত ঘটনা জানিয়ে আমরা পুলিশে অভিযোগ দায়ের করেছি।


বিজয় ওরাও

আমি দাদনে যাওয়ার জন্য ঠিকাদারের থেকে ছয় হাজার টাকা অগ্রিম নিয়েছিলাম। আমার সঙ্গে আরও ১০-১২ জনের বাইরে যাওয়ার কথা ছিল। কিন্তু শেষে দেখা যায় কেউ যেতে রাজি নয়। তাই আমিও যেতে অস্বীকার করি। ঠিকাদারকে অগ্রিমের টাকা ফেরত দিতেও চাই। কিন্তু ওই ঠিকাদার অগ্রিমের টাকা না নিয়ে আমাকে এবং আমার পরিবারকে প্রাণে মেরে দেওয়ার হুমকি দেয়।


অভিযুক্তদের গ্রেফতারের দাবিতে স্থানীয় বাসিন্দারা হরিশ্চন্দ্রপুর স্টেশন সংলগ্ন রাস্তা অবরোধ করে বিক্ষোভ দেখাতে থাকে। ঘণ্টা তিনের অবরোধের পরে পুলিশি হস্তক্ষেপে অবরোধ উঠে যায়।


মালদা জেলার খবর ও বিনোদনের লেটেস্ট ভিডিয়ো আপডেট পেতে ক্লিক করুন



Opmerkingen


বিজ্ঞাপন

Malda-Guinea-House.jpg

আরও পড়ুন

bottom of page