top of page

মেয়ের বিয়ের আগে কাকার হাতে খুন বাবা

পারিবারিক বিবাদের জেরে ভাইকে পিটিয়ে, শ্বাসরোধ করে খুনের অভিযোগ উঠল হরিশ্চন্দ্রপুরের সোনাকুল গ্রামে। ঘটনার পর থেকে অভিযুক্ত পলাতক। তবে অভিযুক্তকে ছেলেকে আটক করেছে হরিশ্চন্দ্রপুর থানার পুলিশ। গোটা ঘটনাকে কেন্দ্র করে চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে এলাকাজুড়ে।


সোনাকুল গ্রামের বাসিন্দা জাহাঙ্গির আলম ও মতিউর রহমান। সম্পর্কে তারা দুই ভাই। দুই ভাইয়ের বাড়ির যাতায়াতের জন্য একটি রাস্তা। স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, সেই রাস্তা নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে বিবাদ চলছিল। রবিবার জাহাঙ্গিরের মেয়ের বিয়ে। তাই ওই রাস্তা দিয়ে প্যান্ডেলের বাঁশ তাঁর বাড়িতে নিয়ে যাওয়ার কথা। কিন্তু মতিউর রাস্তার ধারে ইট রেখেছিলেন। গতকাল সন্ধেয় রাস্তা থেকে ইট সরিয়ে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করেন জাহাঙ্গির। এনিয়ে দুই ভাইয়ের মধ্যে বিবাদ শুরু হয়। অভিযোগ, তখনই জাহাঙ্গিরকে বাঁশ দিয়ে পিটিয়ে, শ্বাসরোধ করে খুন করা হয়।


জাহাঙ্গিরের স্ত্রী খাইরুন বিবি জানান,

রবিবার মেয়ের বিয়ে। তাই রাস্তাটা পরিষ্কার করা হচ্ছিল। রাস্তায় ওরা একটা খুঁটি পুঁতে রেখেছিল। সেই খুঁটিটা সরিয়ে নিতেই ওরা সবাই স্বামীকে বাঁশ দিয়ে পিটিয়ে, শ্বাসরোধ করে মেরে ফেলে।


হরিশ্চন্দ্রপুর থানার পুলিশ জানিয়েছে, ঘটনার পর থেকে পলাতক মতিউর। তার খোঁজে তল্লাশি চলছে। মৃতদেহটি ময়নাতদন্তের জন্য মালদা মেডিকেলে পাঠানো হয়েছে।




আমাদের মালদা এখন টেলিগ্রামেও। জেলার প্রতিদিনের নিউজ পড়ুন আমাদের অফিসিয়াল চ্যানেলে। সাবস্ক্রাইব করতে ক্লিক করুন

বিজ্ঞাপন

Malda-Guinea-House.jpg

আরও পড়ুন

bottom of page