top of page

আত্মরক্ষার জন্য বৈদ্যুতিক গ্লাভস এবার মহিলাদের হাতে

সংবাদমাধ্যমের দৌলতে প্রতিদিনই শোনা যায় ধর্ষণ, শ্লীলতাহানির নানাবিধ কাহিনি৷ রাস্তায় কিংবা রাস্তা থেকে তুলে নিয়ে গিয়ে মহিলাদের উপর অত্যাচার রুখতে এগিয়ে এলেন মালদা শহরের এক যুবক৷ অনেক চিন্তাভাবনা করে তিনি বানিয়ে ফেলেছেন মহিলাদের জন্য বৈদ্যুতিক গ্লাভস৷ যা হাতে পরে গায়ে ঠেকালেই তরিদাহত হয়ে মাটিতে লুটিয়ে পড়বে যে কেউ৷ নিজের তৈরি সেই গ্লাভসকে আরও আধুনিক করতে সরকার কিংবা কোনও বেসরকারি কোম্পানির দিকে এখন তাকিয়ে ওই যুবক৷



মহিলাদের আত্মরক্ষায় এই গ্লাভসটি বানিয়েছেন মালদা শহরের মাধবনগরের বাসিন্দা অমিত ঘোষ৷ অমিত কম্পিউটার মেরামতির কাজ করেন৷ বাড়িতে রয়েছেন স্ত্রী প্রিয়াঙ্কা৷ প্রতিদিন সংবাদমাধ্যমে ধর্ষণ, শ্লীলতাহানির খবরে অমিত বিচলিত হয়ে ওঠেন৷ এরপরেই এনিয়ে চিন্তাভাবনা শুরু করেন অমিত৷ বানিয়ে ফেলেন এমন একটি অস্ত্র, যা মেয়েরা হাতে পরে দুষ্কৃতীদের গায়ে ঠেকালেই কাজ হয়ে যাবে৷ অমিত বলেন, এই ইলেকট্রনিক্স হ্যান্ড গ্লাভস রাস্তাঘাটে মেয়েদের সুরক্ষা দেবে৷ উপকরণ তেমন কিছু নয়৷ একটি ৩ ভোল্টের ব্যাটারি, একটি সার্কিট বোর্ড আর একটি গ্লাভস৷ একটি এলইডি সুইচ চাপলেই ব্যাটারি অন হয়ে যাবে৷ তবে এই গ্লাভসের নীচে একটি রবারের গ্লাভস পরতে হবে৷ এখন ইলেকট্রনিক্স গ্লাভসটি বড্ড বড়ো৷ হাতে পরতে অসুবিধে হতে পারে৷ তাই তিনি চান, সরকার কিংবা কোনও বড়ো কোম্পানির সাহায্যে এই গ্লাভসকে আরও আধুনিক বানাতে৷ যাতে সেটি চামড়ার সঙ্গে মিশে থাকে৷

স্বামীর এই আবিষ্কারে খুশি প্রিয়াঙ্কাও৷ তিনি বলেন, আজকাল রাস্তাঘাটে মেয়েরা নিরাপদ নয়৷ প্রতিদিনই টিভি বা সংবাদপত্রে ধর্ষণ, শ্লীলতাহানির খবর পাওয়া যায়৷ তাঁর স্বামীর তৈরি হ্যান্ড গ্লাভস মেয়েদের নিরাপত্তা দেবে৷ তবে এই গ্লাভসে কারোর প্রাণহানির ভয় নেই৷ শুধুমাত্র কিছুক্ষণের জন্য হামলাকারী জ্ঞান হারিয়ে ফেলবে৷


আমাদের মালদা এখন টেলিগ্রামেও। জেলার প্রতিদিনের নিউজ পড়ুন আমাদের অফিসিয়াল চ্যানেলে। সাবস্ক্রাইব করতে ক্লিক করুন

ভিডিয়োঃ কৃতাঙ্ক

বিজ্ঞাপন

Malda-Guinea-House.jpg

আরও পড়ুন

bottom of page