top of page

গ্রামের যুবকেরা মোটা বেতনের লোভে অসাধু চক্রের ফাঁদে

মোটা অংকের বেতনের লোভ দেখিয়ে গ্রাম থেকে নাবালকদের পাচার করা হচ্ছে ভিন রাজ্যে৷ ভিনরাজ্যে পাচার হতেই পরিবারের সঙ্গে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে যাচ্ছে নাবালকদের৷ এমনই অভিযোগে সরব হয়েছে ইংরেজবাজারের নরহাট্টা গ্রাম পঞ্চায়েতের সাতঘরিয়া এলাকায়৷ অভিযোগ, গ্রামের একাধিক নাবালক এই চক্রের শিকার হয়েছে৷ তবে এই ঘটনায় এখনও পর্যন্ত পুলিশে অভিযোগ জানানো হয়নি৷



ইংরেজবাজারের নরহাট্টা গ্রাম পঞ্চায়েতের সাতঘরিয়া এলাকায় এখন নিস্তব্ধতা৷ এলাকার প্রায় ৭-১০ জন নাবালক কাজের জন্য ভিন রাজ্যে পাড়ি দিয়েছেন মোটা অংকের বেতনের লোভে৷ সেই মোটা অংকের বেতনের চাকরি পেতে দিতে হয়েছে মোটা অংকের টাকাও৷ ওই এলাকার আবুল হোসেন নামে এক ব্যক্তির অভিযোগ, তাঁর দুই নাতি হাসান ও গফ্ফর স্থানীয় এক ব্যক্তির ফাঁদে পড়ে৷ ২৫ হাজার টাকা মাসিক বেতনের চুক্তিতে আড়াই মাস আগে পাটনার একটি কোম্পানিতে কাজে যোগ দিতে যায় তারা৷ সেই কাজ পাইয়ে দেওয়ার জন্য ওই ব্যক্তি মাথাপিছু ২২ হাজার টাকা করে নেয়৷ কিন্তু ভিনরাজ্যে যেতেই নাতিদের সঙ্গে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে গিয়েছে৷ তাঁদের অনুমান, হয় ওই নাবালকদের আটকে রাখা হয়েছে অথবা তাদের বিক্রি করে দেওয়া হয়েছে৷


বিষয়টি নিয়ে নরহাট্টা গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রাক্তন প্রধান সফিকুল হক জানান, বিষয়টি এখনও তাঁর জানা নেই৷ সে সব নাবালক ভিনরাজ্যে গিয়ে আটকে রয়েছে তাঁদের পরিবারের লোকজন এখনও তাঁদের সঙ্গে যোগাযোগ করেননি৷ তবে তিনি বিষয়টি নিয়ে খোঁজখবর নেবেন৷এদিকে, এই ঘটনার বিষয়ে কিছুই জানা নেই বলে জানান এলাকার বিধায়ক অর্জুন হালদার৷ তিনি বলেন, এবিষয়ে এখনও পর্যন্ত তাঁর কাছে কেউ অভিযোগ জানাননি৷ তবে তিনি সমস্ত বিষয় খতিয়ে দেখতে ওই পরিবারের লোকজনের সঙ্গে কথা বলবেন৷

Comments


বিজ্ঞাপন

Malda-Guinea-House.jpg

আরও পড়ুন

bottom of page