top of page

তিন মাসে চার কোটি আয় পুরসভার?

তিন মাসের মধ্যেই নিজস্ব তহবিলে প্রায় সাড়ে চার কোটি টাকা আয় করেছে ইংরেজবাজার পুরসভার বর্তমান বোর্ড। পরিসেবা পেয়ে মানুষ পুরকর দিতে উদ্যোগী হয়েছেন বলে দাবি করেছেন পুরপ্রধান। পাশাপাশি পুরসভার পরিসেবা নিয়ে পুরোনো বোর্ডকে একহাত নিয়েছেন তিনি।


গত ৩০ মার্চ ইংরেজবাজার পুরসভার চেয়ারম্যানের দায়িত্ব নিয়েছেন কৃষ্ণেন্দুনারায়ণ চৌধুরি। তিনি জানান, রাজ্য সরকারের তরফে বার বার বলা হয়েছে, পুরসভার নিজস্ব আয় বাড়াতে হবে। শুধুমাত্র সরকারের পাঠানো টাকার ওপর ভরসা করে থাকলে হবে না। এরপরেই পুরসভার বিভিন্ন কর আদায়, মিউটেশন, বাড়ির নকশা অনুমোদন প্রভৃতি বিষয়ের উপর নজর দেওয়া হয়। এতেই তিন মাসে প্রায় সাড়ে চার কোটি টাকা আয় হয়েছে। আগে এই শহরের নাগরিকরা ঠিকমতো পুর পরিসেবা পেতেন না। তাই তাঁরা কর দিতে আগ্রহীও ছিলেন না। এখন মানুষ পরিসেবা পাচ্ছেন তাই কর দিতে আগ্রহী হয়েছেন।



পুর পরিসেবা নিয়ে কৃষ্ণেন্দুবাবুর মন্তব্যের পেছনে যে আগের চেয়ারম্যান নীহাররঞ্জন ঘোষ ছিলেন তা সকলেই বুঝতে পারছেন। বিষয়টি নিয়ে তাঁর প্রতিক্রিয়া পাওয়া না গেলেও তাঁর ঘনিষ্ঠ মহলের দাবি, তিন মাসে সাড়ে চার কোটি টাকা আয়ের স্বপ্ন বোধ হয় কলকাতা কর্পোরেশনও দেখে না। তাঁদের পালটা প্রশ্ন, পুরসভার যদি এতই আয় হয় তবে ঠিকাদাররা কেন বকেয়া বিল পাচ্ছেন না? পুরসভার ক্যাজুয়াল কর্মীদের বেতন কেন মাসের শেষে হচ্ছে?




আমাদের মালদা এখন টেলিগ্রামেও। জেলার প্রতিদিনের নিউজ পড়ুন আমাদের অফিসিয়াল চ্যানেলে। সাবস্ক্রাইব করতে ক্লিক করুন

বিজ্ঞাপন

Malda-Guinea-House.jpg

আরও পড়ুন

bottom of page