top of page

ইকো ট্যুরিজম পার্ক হচ্ছে সাগরদিঘিতে

সাগরদিঘিকে ঘিরে বড়োসড়ো একটি ইকো ট্যুরিজম পার্ক করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে রাজ্য সরকার৷ এনিয়ে আগ্রহ রয়েছে খোদ মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের। সোমবার মালদায় এসে সাগরদিঘি পরিদর্শন করে এমনটাই জানালেন রাজ্যের মৎস্যমন্ত্রী চন্দ্রনাথ সিন্‌হা৷


তিনি আরো জানান, এই পার্ক গড়ার দায়িত্বে রয়েছেন জেলাশাসক৷ খুব তাড়াতাড়ি সেই কাজ শুরু হয়ে যাবে৷ প্রথমে বড়ো সাগরদিঘি সংযোগকারী রাস্তা নির্মাণ করা হবে৷ তারপর হাত দেওয়া হবে বিদ্যুতায়নের কাজে৷ পর্যটকরা যাতে সেখানে রাতে থাকতে পারেন, তার জন্য দিঘির চারপাশে বসার জায়গার পাশাপাশি তৈরি করা হবে অতিথি নিবাস৷



সোমবার মালদা কলেজ ময়দানে মৎস্য দপ্তর আয়োজিত চুনো-পুঁটি খাল-বিল মেলার উদ্বোধনে আসেন মৎস্যমন্ত্রী৷ সকালে তিনি সাদুল্লাপুরে মরা ভাগীরথী পরিদর্শনে যান৷ মন্ত্রী থাকাকালীন কৃষ্ণেন্দুনারায়ণ চৌধুরির উদ্যোগে গঙ্গা ও মরা ভাগীরথীর সংযোগকারী স্লুইস গেট চালু করা হয়৷ ফলে বর্তমানে মরা ভাগীরথীতে বেশ ভালো জল৷ সেই জলে এদিন বিভিন্ন প্রজাতির মাছের পোনা ছাড়েন মৎস্যমন্ত্রী৷ সেখান থেকে জেলাশাসককে নিয়ে তিনি চলে যান বল্লাল সেনের আমলে তৈরি বড়ো সাগরদিঘিতে৷ সেখানে ইকো ট্যুরিজমের সম্ভাবনা খতিয়ে দেখেন তিনি৷ সেখানকার দুটি পুকুরে মাছের পোনা ছাড়েন ও একটি অত্যাধুনিক ল্যাবরেটরির উদ্বোধন করেন তিনি৷


বিকেলে মালদা কলেজ ময়দানে আয়োজিত চুনো-পুঁটি খাল-বিল মেলার উদ্বোধন করেন চন্দ্রনাথবাবু৷ সেখানে উপস্থিত ছিলেন জেলাশাসক কৌশিক ভট্টাচার্য ছাড়াও মৎস্য দপ্তরের আধিকারিকদের সঙ্গে জেলা প্রশাসনের কর্তারা৷ মেলা উপলক্ষ্যে ময়দানে ২৮টি স্টল খোলা হয়েছিল৷ তার মধ্যে ৩টি স্টল থেকে সরকারি মূল্যে মাছ কিনেছেন মেলায় আসা সাধারণ মানুষ৷ জেলার ৬১টি মৎস্য সমবায় সমিতি থেকে ১০০০ মৎস্য চাষি মেলায় অংশ নেন৷


আমাদের মালদা এখন টেলিগ্রামেও। জেলার প্রতিদিনের নিউজ পড়ুন আমাদের অফিসিয়াল চ্যানেলে। সাবস্ক্রাইব করতে ক্লিক করুন

تعليقات


বিজ্ঞাপন

Malda-Guinea-House.jpg

আরও পড়ুন

bottom of page