top of page

কৃষিজমি জলের তলায়, দুশ্চিন্তায় হরিশ্চন্দ্রপুরের চাষিরা

করোনা আবহে এমনিতেই চিন্তিত ছিল চাষিরা। এরমধ্যে টানা তিন দিনের বৃষ্টিতে চাষের জমি জলে তলিয়ে যাওয়ায় মাথায় হাত চাষিদের। ইতিমধ্যে ক্ষতিগ্রস্ত জমি পরিদর্শন করেছে কৃষি দফতরের আধিকারিকরা।


নিম্নচাপের জেরে লাগাতার তিন দিনের বৃষ্টিতে হরিশ্চন্দ্রপুরের তুলসিহাট্টা, কাহাট্টা, অঙ্গারমুনি, কুশিদা, মহেন্দ্রপুর এলাকার বেশ কিছু কৃষি জমি জলে তলিয়েছে। করোনা আবহের মধ্যে আমন ধান চাষ করে খানিকটা লাভের আশা করেছিলেন চাষিরা। কিন্তু কৃষিজমি জলে তলিয়ে যাওয়ায় মাথায় হাত পড়েছে চাষিদের।



কৃষি দফতর সূত্রে জানা গিয়েছে, অর্থকরী ফসল আমন ধানের চাষ হরিশ্চন্দ্রপুর এলাকার প্রায় সমস্ত চাষিই করে থাকেন। বিশেষ করে এই সময় অন্য ফসল তেমন না হওয়ায়, ধার দেনা করে প্রায় সকলেই আমন চাষ করেন। এখন কৃষি জমি জলে তলিয়ে যাওয়ায় দুশ্চিন্তায় পড়েছেন চাষিরা।




চাঁচল ১ ব্লকের সহ অধিকর্তা দীপঙ্কর দেব বলেন, কৃষি দফতরের তরফে ক্ষতিগ্রস্ত জমি পরিদর্শন করা হয়েছে। জমি থেকে জল বের করা গেলে ফসলের তেমন ক্ষতি হবে না। কিন্তু অনেক এলাকায় নিকাশি ব্যবস্থা নেই। জল নামার পরেই ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ জানা যাবে।


আমাদের মালদা এখন টেলিগ্রামেও। জেলার প্রতিদিনের নিউজ পড়ুন আমাদের অফিসিয়াল চ্যানেলে। সাবস্ক্রাইব করতে ক্লিক করুন

Commenti


বিজ্ঞাপন

Malda-Guinea-House.jpg

আরও পড়ুন

bottom of page