top of page

পারিবারিক বিবাদ, স্ত্রীর গায়ে ফুটন্ত জল ঢালল স্বামী

পারিবারিক অশান্তির জেরে অন্তঃসত্ত্বা বধূর শরীরে ফুটন্ত কড়াইয়ের জল ঢেলে দেওয়ার অভিযোগ স্বামীর বিরুদ্ধে। গৃহবধূর চিৎকারে পালানোর চেষ্টা করলেও স্থানীয় বাসিন্দারা স্বামীকে আটক করে পুলিশের হাতে তুলে দেয়। নির্যাতিতা গৃহবধূ বর্তমানে হরিশ্চন্দ্রপুর গ্রামীণ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। চাঞ্চল্যকর ঘটনাটি ঘটেছে হরিশ্চন্দ্রপুরের মহেন্দ্রপুর গ্রামপঞ্চায়েতের অন্তর্গত ইসলামপুর গ্রামে।


Domestic-Violence-husband-pours-boiling-water-on-wife
নির্যাতিতা গৃহবধূ হরিশ্চন্দ্রপুর গ্রামীণ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। প্রতীকী ছবি।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, চার বছর আগে বিয়ে হয় ওই দম্পতির। তাঁদের দুই পুত্র সন্তান রয়েছে। বর্তমানে তিন মাসের অন্তঃসত্ত্বা ওই গৃহবধূ। অভিযোগ, বিয়ের পর থেকেই শাশুড়ি ও স্বামী নানা অজুহাতে ওই গৃহবধূকে নির্যাতন করতেন। গত কয়েকদিন ধরে নির্যাতন আরও চরমে উঠেছিল। আজ ওই গৃহবধূর শাশুড়ি একটি পাত্রে জল রেখেছিলেন। সেই জল উলটে দেয় নির্যাতিতা গৃহবধূর ছেলে। এনিয়ে পরিবারে বচসা বেধে যায়। সেই সময় ওই গৃহবধূর গায়ে গরম জল ঢেলে দেওয়া হয় বলে অভিযোগ।


নির্যাতিত গৃহবধূ বলেন,

‘কড়াইয়ে আলু সেদ্ধ হচ্ছিল। পাশে দুই ছেলেকে নিয়ে মটরশুঁটি ছাড়াচ্ছিলাম। কড়াইয়ের ফুটন্ত জল পিছন থেকে আচমকা আমার গায়ে ঢেলে দেওয়া হয়। যে এমন আচরণ করতে পারে তার সঙ্গে সংসার করতে চাই না।

চাঁচলের এসডিপিও শুভেন্দু মণ্ডল জানান, অভিযুক্তকে গ্রেফতার করা হয়েছে। পুলিশ ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে।


আমাদের মালদা এখন টেলিগ্রামেও। জেলার প্রতিদিনের নিউজ পড়ুন আমাদের অফিসিয়াল চ্যানেলে। সাবস্ক্রাইব করতে ক্লিক করুন

বিজ্ঞাপন

Malda-Guinea-House.jpg

আরও পড়ুন

bottom of page