top of page

অবরোধ তুলতে গিয়ে দুই পদাধিকারির বিতণ্ডা, অস্বস্তিতে মহকুমাশাসক

তফসিলি উপজাতিভুক্ত মহিলাদের শূকর বিলি নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে বিক্ষোভ প্রদর্শন করছেন উপভোক্তারা। গতকাল জাতীয় সড়ক অবরোধ করে চলতে থাকে বিক্ষোভ। বিক্ষোভকারীদের সঙ্গে কথা বলতে গিয়ে বাকবিতণ্ডায় জড়িয়ে পড়লেন দুই পদাধিকারিক। তাঁদের একজন পুরাতন মালদার বিডিও, অন্যজন পুরাতন মালদা পঞ্চায়েত সমিতির সভানেত্রী৷


উল্লেখ্য, শূকরের বদলে টাকা দেওয়ার দাবি নিয়েই গত কয়েকবছর ধরে লড়াই চালিয়ে যাচ্ছেন আদিবাসী মহিলারা৷ গতকাল বিকেলে নিজেদের দাবি নিয়ে আদিবাসী মহিলারা বিডিও অফিসে যান৷ তাঁরা দাবি করেন, বিডিওকে বাইরে বেরিয়ে সবার সঙ্গে কথা বলতে হবে৷ কিন্তু, দীর্ঘক্ষণ পেরিয়ে গেলেও বিডিও বাইরে না আসায় মহিলারা অফিসের সামনে ১২ নম্বর জাতীয় সড়কে অবরোধ শুরু করেন৷ পুলিশ আধিকারিকরা বিক্ষোভকারীদের বোঝানোর চেষ্টা করে ব্যর্থ হন। অবশেষে বিডিওর দফতরে যান মহকুমাশাসক সুরেশচন্দ্র রানো। বিডিও ইরফান হাবিব ও পঞ্চায়েত সমিতির সভানেত্রী মৃণালিনী মণ্ডল মাইতিকে নিয়ে অবরোধ স্থলে যান মহকুমাশাসক।



সেই সময়ই কথা কাটাকাটিতে জড়িয়ে পড়েন বিডিও এবং পঞ্চায়েত সমিতির সভানেত্রী৷ দুই পদাধিকারীর বাকবিতণ্ডায় অস্বস্তিতে পড়েন মহকুমাশাসক৷ শেষ পর্যন্ত তাঁর উদ্যোগেই অবরোধ তোলেন মহিলারা। এদিকে, প্রকাশ্য রাস্তায় দুই পদাধিকারীর বিতণ্ডা নিয়ে এলাকায় জোর চর্চা শুরু হয়েছে।




আমাদের মালদা এখন টেলিগ্রামেও। জেলার প্রতিদিনের নিউজ পড়ুন আমাদের অফিসিয়াল চ্যানেলে। সাবস্ক্রাইব করতে ক্লিক করুন

বিজ্ঞাপন

Malda-Guinea-House.jpg

আরও পড়ুন

bottom of page