top of page

জরাজীর্ণ আবাসনে থেকে পরিসেবা দিচ্ছেন পুলিশকর্মীরা

জরাজীর্ণ অবস্থায় পুলিশ আবাসন। ইংরেজবাজার থানার পুলিশ আবাসন ও পুলিশের লাইনের একাধিক আবাসনের কঙ্কালসার ছবি ধরা পড়ল আমাদের মালদার ক্যামেরায়। আবাসন মেরামতির কাজ চলছে বলে জানান পুলিশসুপার অলোক রাজোরিয়া।



করোনা আবহে দিনরাত সাধারণ মানুষকে পরিসেবা দিয়ে চলেছেন পুলিশকর্মীরা। করোনা যোদ্ধা হিসেবে প্রথম শ্রেণির পর্যায়ে রাখা হয়েছে পুলিশকর্মীদের। সেই পুলিশকর্মীদের আবাসনে চেহারা দেখলে হয়তো আঁতকে উঠবেন অনেকেই। রাতের অন্ধকারে দেখলে হয়তো অনেকেই ভৌতিক বাড়ি ভেবে ভুলও করতে পারেন। ইংরেজবাজার থানা ও পুলিশ লাইনে অবস্থিত আবাসনগুলি অবস্থা জরাজীর্ণ। দেওয়াল ফেটে গজিয়ে উঠেছে লতাপাতা। বসবাসের অযোগ্য হলেও সেই আবাসনেই রাত কাটিয়ে সাধারণ মানুষকে পরিসেবা দিচ্ছেন পুলিশকর্মীরা। কবে এই আবাসনের সংস্কারের কাজ হবে তা জানা নেই কোনও পুলিশকর্মীর।



জেলা পুলিশসুপার অলোক রাজোরিয়া জানান, মালদা জেলার অনেক থানা এলাকার আবাসন এখন জরাজীর্ণ অবস্থায় রয়েছে। সেই সমস্ত জরাজীর্ণ আবাসনের সংস্কারের কাজ শুরু হয়েছে। ইতিমধ্যে মধ্যে প্রায় ৬০ শতাংশ আবাসনের মেরামতি হয়ে গেছে। বাকি ৪০ শতাংশ আবাসনের মেরামতির জন্য প্রস্তাব চলে গেছে। দ্রুত সেই আবাসনগুলির মেরামতির কাজ শুরু হবে।



আমাদের মালদা এখন টেলিগ্রামেও। জেলার প্রতিদিনের নিউজ পড়ুন আমাদের অফিসিয়াল চ্যানেলে। সাবস্ক্রাইব করতে ক্লিক করুন


বিজ্ঞাপন

Malda-Guinea-House.jpg

আরও পড়ুন

bottom of page