top of page

মালতিপুরে কালী দৌড় দেখতে উপচে পড়ল ভিড়

আয়োজিত হল কালী দৌড় প্রতিযোগিতা। সাড়ে তিনশো বছরের বেশি সময় ধরে এভাবেই রীতি অনুযায়ী চাঁচলের মালতিপুরে এই প্রতিযোগিতার আয়োজন হয়ে আসছে।


কীভাবে এই প্রতিযোগিতার সূচনা হল? কথিত আছে, সেই সময় মালদার মালতিপুর এলাকায় একটিমাত্র পুকুর ছিল। সেই পুকুরে একাধিক প্রতিমা বিসর্জন হত। সেই সময় চাঁচলের রাজা শরৎচন্দ্র রায় বাহাদুর সুষ্ঠুভাবে প্রতিমা নিরঞ্জন প্রক্রিয়া করার জন্য শুরু করেছিলেন এক প্রতিযোগিতা। কালীপুজোর পরের দিন সন্ধ্যার সময় মালতিপুর বাজারে একটি কালী দৌড় প্রতিযোগিতার আয়োজন করেন তিনি। এই প্রতিযোগিতার পর যে প্রতিমা অক্ষুণ্ণ থাকবে সেই প্রতিমা আগে বিসর্জন দেওয়া হবে। সেই সময় থেকে এই রীতি মেনে এখনও আয়োজিত হচ্ছে কালী দৌড় প্রতিযোগিতা।



সোমবার সন্ধেয় মালতিপুর এলাকার মোট আটটি কালী প্রতিমার দৌড় হয়েছে। এদের মধ্যে ছিলেন বুড়ি কালী, চুনকা কালী, বাজারপাড়া কালী, আম কালী, হ্যান্টা কালী, হাট কালী ও শ্যামা কালী। এই প্রতিযোগিতাকে কেন্দ্র করে বহু মানুষ ভিড় জমিয়ে থাকেন মালতিপুর এলাকায়।


আমাদের মালদা এখন টেলিগ্রামেও। জেলার প্রতিদিনের নিউজ পড়ুন আমাদের অফিসিয়াল চ্যানেলে। সাবস্ক্রাইব করতে ক্লিক করুন

বিজ্ঞাপন

Malda-Guinea-House.jpg

আরও পড়ুন

bottom of page