top of page

কালভার্টে ফাটল, জুতোর মালা পড়াতে তৈরি গ্রাম

কাজ শুরু হওয়ার মধ্যেই কালভার্টের দেখা দিয়েছে ফাটল। এনিয়ে বিধায়কের গলায় জুতোর মালা পরানোর কথা উঠে আসছে স্থানীয় বাসিন্দাদের মুখে। যদিও এনিয়ে স্থানীয় বিধায়কের কোনো প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি। পঞ্চায়েত নির্বাচনের মুখে এমন অভিযোগে অস্বস্তিতে পড়েছে জেলা তৃণমূল নেতৃত্ব। দ্রুত সমস্যার সমাধানের আশ্বাস জেলাপরিষদের।


cracked-before-the-job-was-done-chaos-in-village
কালভার্টের দেখা দিয়েছে ফাটল

রতুয়া-১ ব্লকের ভাদো পঞ্চায়েতের চাপরা গ্রামে ঢোকার মুখে রয়েছে বারোমাসিয়া নালা৷ যাতায়াতের জন্য সেই নালার উপর তৈরি করা হয়েছে কালভার্ট। তৈরি হচ্ছে অ্যাপ্রোচ রোডও। জেলাপরিষদের ৩২ লক্ষ টাকা তহবিলে এই কাজ করা হচ্ছে। তবে এই কালভার্ট নির্মাণের কাজ শেষ হওয়ার আগেই ফাটল দেখা দিয়েছে বলে দাবি স্থানীয় বাসিন্দাদের। এনিয়ে রতুয়ার বিধায়ক সমর মুখার্জির বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগড়ে দিয়েছেন এলাকাবাসী। স্থানীয় বাসিন্দাদের দাবি, ভোটের আগে সমরবাবু নাকি স্থানীয় বাসিন্দাদের বলেছিলেন, ভোটে জিতলে স্থায়ীভাবে কালভার্টের কাজ করে দেওয়া হবে। না কাজ না হলে গ্রামবাসীরা তাঁকে জুতোর মালা পরিয়ে ঘোরাবেন। ভোটের আগের সেই প্রতিশ্রুতি টেনে গ্রামবাসীদের মুখে এখন বিধায়ককে জুতোর মালদা পরিয়ে ঘোরানোর কথা ঘুরছে।



ঘটনাপ্রসঙ্গে জেলাপরিষদের সভাধিপতি বলেন,

ঠিকাদারের বিরুদ্ধে নিম্নমানের কাজের অভিযোগ উঠছে, বিষয়টি খতিয়ে দেখে উপযুক্ত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

তিনি আরও বলেন, চাপরা গ্রামে ঢোকার মুখে কালভার্ট আগেই তৈরি করা হয়েছিল। পরবর্তীতে সেই কালভার্টকে সাপোর্ট দেওয়ার জন্য অতিরিক্ত কাজ করা হচ্ছে। শোনা যাচ্ছে ওই কালভার্টের পাশে ফাটল দেখা দিয়েছে। বিষয়টি তদারকির জন্য জেলাপরিষদের ইঞ্জিনিয়ারকে জানানো হয়েছে।


আমাদের মালদা এখন টেলিগ্রামেও। জেলার প্রতিদিনের নিউজ পড়ুন আমাদের অফিসিয়াল চ্যানেলে। সাবস্ক্রাইব করতে ক্লিক করুন

বিজ্ঞাপন

Malda-Guinea-House.jpg

আরও পড়ুন

bottom of page