top of page

কংগ্রেসের মান রাখল গণি পরিবার

রাজ্যে কংগ্রেসের অস্তিত্ব বজায় রাখলেন ঈশা খান চৌধুরি। গত বিধানসভা নির্বাচনে সুজাপুর কেন্দ্র থেকে পরাজয়ের পর চলতি লোকসভা নির্বাচনে দক্ষিণ মালদার প্রার্থী হিসেবে তাঁর নাম নিয়ে অনেক প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছিল। তবে গতকাল ভোট গণনা শেষ হওয়ার আগেই সমালোচকদের সমস্ত উত্তর দিয়ে দিয়েছেন দু’বারের বিধায়ক। সঙ্গে পশ্চিমবঙ্গে দলের অস্তিত্ব বজায় রেখেছেন।


গত লোকসভা নির্বাচনে রাজ্য জুড়ে ভরাডুবি হলেও বহরমপুর ও দক্ষিণ মালদা লোকসভা কেন্দ্র কংগ্রেসের দখলে ছিল। এবার সেই বহরমপুর লোকসভা কেন্দ্রেও হারের মুখ দেখেছেন অধীররঞ্জন চৌধুরি। তবে জ্যেঠু ও বাবার দেখানো পথ অনুসরণ করে দক্ষিণ মালদা আসনে কংগ্রেসকে জিইয়ে রেখেছেন ঈশা খান চৌধুরি। ঈশা জানান, মানুষ কেন্দ্রে বদল চায়৷ তারা রাহুল গান্ধিকে প্রধানমন্ত্রী দেখতে চায়৷ তা থেকেই বুঝতে পেরেছিলাম এই কেন্দ্রে আমার জয় নিশ্চিত। এই জয়ের পিছনে যেমন আমার জ্যেঠু গনিখান চৌধুরির প্রেরণা রয়েছে, তেমনই রয়েছে বাবা আবু হাসেম খান চৌধুরির আশীর্বাদ৷ এই এলাকার প্রধান দুই সমস্যা গঙ্গা ভাঙন ও পরিযায়ী শ্রমিকের সমস্যা মেটানোর চেষ্টা করব৷


ফাইল চিত্র।

রাজ্যে বাম-কংগ্রেসের ভরাডুবি প্রসঙ্গে ঈশার বক্তব্য, রাজ্যবাসী হয়তো বিজেপি বিরোধী শক্তি হিসাবে তৃণমূলের উপর বেশি ভরসা রেখেছে৷ তবে মানুষ আমাদের সঙ্গে রয়েছে। ভোটের পর প্রায় সমস্ত এগজিট পোলে ইন্ডিয়া জোটকে ১৩০-১৪০টি আসন দেওয়া হয়েছিল৷ কিন্তু সব পোলকে ভুল প্রমাণিত করে ইন্ডিয়া জোট ২৩০টির গণ্ডি পেরিয়েছে৷ এই পরিস্থিতিতে যদি এনডিএ জোটের কোনও দল আমাদের সমর্থন করে, তবে কেন্দ্রে ইন্ডিয়া জোটের সরকার গঠিত হতে পারে৷


আমাদের মালদা এখন টেলিগ্রামেও। জেলার প্রতিদিনের নিউজ পড়ুন আমাদের অফিসিয়াল চ্যানেলে। সাবস্ক্রাইব করতে ক্লিক করুন

Komentarai


বিজ্ঞাপন

Malda-Guinea-House.jpg

আরও পড়ুন

bottom of page