top of page

জমি দখলকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষ, উত্তেজনা হরিশ্চন্দ্রপুরে

জমির দখল নিয়ে তৃণমূলের দুই গোষ্ঠীর সংঘর্ষ। সংঘর্ষে আহত হয়েছেন বেশ কয়েকজন পুরুষ ও মহিলা। আহতরা বর্তমানে হরিশ্চন্দ্রপুর গ্রামীণ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন৷ ঘটনাকে কেন্দ্র করে ব্যাপক উত্তেজনা হরিশ্চন্দ্রপুর-১ নম্বর ব্লকের ভিঙ্গোল গ্রামপঞ্চায়েত এলাকায়।


স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, জমির মালিকানা নিয়ে রাহানুল হক ও শেখ আফতাবউদ্দিনের পরিবারের মধ্যে গত কয়েক মাস ধরে বিবাদ চলছে৷ এলাকায় দুই পরিবারই তৃণমূল কর্মী হিসেবে পরিচিত। আজ সকালে বিতর্কিত ওই জমিতে বেড়া দিচ্ছিল এক পক্ষ৷ অপর পক্ষ বেড়া দিতে বাধা দেওয়ায় এলাকায় উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। এরপরেই দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ শুরু হয়৷ লাঠির ঘায়ে গুরুতর আহত হন দুপক্ষের প্রায় ১২-১৪ জন। এই মুহূর্তে আহতরা হরিশ্চন্দ্রপুর গ্রামীণ হাসপাতালে ভরতি রয়েছেন।



রাহানুল হকের পরিবারের দাবি, ওই জমি তাঁদের নামে রয়েছে৷ সেই নথিপত্রও তাঁদের কাছে রয়েছে। আফতাবউদ্দিনের লোকজন এসে জমিটি ঘেরার চেষ্টা করে। কিন্তু ওদের কাছে কোনও নথিপত্র ছিল না। খবর পেয়ে পুলিশ আসলে ওরা বেড়াও খুলে নিয়ে চলে যায়৷ পুলিশ চলে যেতেই ওরা লাঠিসোটা নিয়ে হামলা চালায়৷


শেখ আফতাবউদ্দিনের পরিবারের দাবি, ওই জমি তাঁদের পূর্ব পুরুষের। রাহানুলরা সেই জমি জোর করে দখল করে রেখেছে। এতদিন বিষয়টি তাঁদের জানা ছিল না। বিষয়টি জানার পর ওদের থেকে জমিটি দাবি করেছিলেন তাঁরা৷ পুলিশ এলাকায় এসে জমির কাগজপত্র নিয়ে এই ঝামেলা মেটানোর চেষ্টা করে৷ কিন্তু পুলিশকর্মীরা চলে যেতেই রাহানুলের লোকজন মারামারি শুরু করে।




আমাদের মালদা এখন টেলিগ্রামেও। জেলার প্রতিদিনের নিউজ পড়ুন আমাদের অফিসিয়াল চ্যানেলে। সাবস্ক্রাইব করতে ক্লিক করুন

תגובות


বিজ্ঞাপন

Malda-Guinea-House.jpg

আরও পড়ুন

bottom of page