top of page

অভিষেকের রাত্রিবাসের পর বেহাল চাঁচলের মাঠ, ক্ষোভ

চাঁচল স্টেডিয়ামের মাঠে নবজোয়ার যাত্রায় রাত্রিবাস করেছিলেন তৃণমূলের সেকেন্ড-ইন-কমান্ড অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। মাঠ জুড়ে সেই পরিবেশ আগে কখনও দেখেনি এলাকাবাসী। গত ৩ মে সেখানে রাত্রিবাস করেছিলেন সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। পরদিন সেই তাঁবু খুলে নেওয়া হয়। সেই পুরো সেট চলে যায় মুর্শিদাবাদে। কিন্তু চাঁচল স্টেডিয়ামের মাঠ আর পুরোনো জায়গায় ফিরে আসেনি। পাঁচদিন হতে চললেও এখনও মাঠের অবস্থা বেহাল। চারিদিকে গর্ত। এদিক-ওদিক পড়ে রয়েছে লোহার টুকরো, পেরেক। খোলা রয়েছে বৈদ্যুতিক তার। মাঠের বেহাল দশা নিয়ে ক্ষুব্ধ চাঁচলের ক্রীড়াপ্রেমীরা। ঘটনাকে ঘিরে শুরু হয়েছে রাজনৈতিক তরজাও।


Chanchal Sports lovers are angry about the bad condition of the field
বেহাল অবস্থায় চাঁচল স্টেডিয়ামের মাঠ। সংবাদচিত্র।

চলতি মাসের ৩ মে তৃণমূলে নবজোয়ার কর্মসূচির জন্য চাঁচল স্টেডিয়ামে রাজকীয়ভাবে খাটানো হয়েছিল শতাধিক তাঁবু। উত্তর মালদার ৮৭ টি অঞ্চলের প্রার্থী বাছাইয়ের গোপনভোটও হয় সেখানে। সেখানেই রাত্রিবাস করেন তৃণমূলের সেকেন্ড-ইন-কমান্ড। সেই কর্মসূচি শেষ হওয়া প্রায় এক সপ্তাহ হতে চললেও এখনও মাঠ সংস্কার হয়নি। এনিয়ে ক্ষোভ দেখা দিয়েছে স্থানীয় বাসিন্দা থেকে শুরু করে খেলোয়াড়দের মধ্যে।


চাঁচলের বাসিন্দা দীপক চ্যাটার্জি বলেন, চাঁচলে বড়ো মাঠ নেই। সকাল বিকেল স্টেডিয়ামের মাঠেই শরীরচর্চা করতাম। তৃণমূলের কর্মসূচির পর মাঠের বেহাল অবস্থা। যেখানে সেখানে কাচের টুকরো-পেরেক পড়ে রয়েছে। মাঠ পুরো নোংরা হয়ে রয়েছে। তাই আর মাঠে শরীরচর্চা করতে যেতে পারছি না।



ঘটনাপ্রসঙ্গে কোনো মন্তব্য করতে রাজি হননি চাঁচলের মহকুমাশাসক কল্লোল রায়। তবে চাঁচল-১ নম্বর ব্লক তৃণমূল কংগ্রেসের সহ-সভাপতি শেখ আফসার আলি জানিয়েছেন, এখন সমস্ত পরিকাঠামো খোলা সম্ভব হয়নি। প্রখর রোদে সেভাবে কাজ করা যাচ্ছে না। সমস্ত পরিকাঠামো খুলে দ্রুত মাঠ সংস্কার করা হবে।


আমাদের মালদা এখন টেলিগ্রামেও। জেলার প্রতিদিনের নিউজ পড়ুন আমাদের অফিসিয়াল চ্যানেলে। সাবস্ক্রাইব করতে ক্লিক করুন

বিজ্ঞাপন

Malda-Guinea-House.jpg

আরও পড়ুন

bottom of page