top of page

মহানন্দা তীরে শতাব্দী প্রাচীন দুর্গা ও কালভৈরবের মূর্তি উদ্ধার

মালদা শহরের রামকৃষ্ণ মিশন ঘাট সংলগ্ন এলাকা থেকে উদ্ধার শতাব্দী প্রাচীন দুটি পাথরের মূর্তি। মূর্তি দুটি উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায় ইংরেজবাজার থানার পুলিশ।


স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, আজ সকালে নদীর তীরে খেলার সময় কয়েকজন শিশু মূর্তি দুটি দেখতে পায়। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে ছুটে আসে ইংরেজবাজার থানার পুলিশ। মূর্তি দুটি উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যাওয়া হয়। স্থানীয়দের অনুমান, উদ্ধার মূর্তির দুটি দুর্গা ও কালভৈরবের মূর্তি। একসময় বাংলা-বিহার-উড়িষ্যার রাজধানী ছিল মালদা জেলার গৌড়। এর আগেও জেলার বহু জায়গায় মাটি খুড়তে গিয়ে পাথরের মূর্তি সহ বিভিন্ন সামগ্রী উদ্ধার হওয়ার ঘটনা সামনে এসেছে। এর আগেও মহানন্দা নদীতীর সংলগ্ন এলাকায় স্লেট পাথরের একটি বিষ্ণু মূর্তি পাওয়া গিয়েছিল সাহাপুর এলাকা থেকে। মহানন্দা নদীর তীর এলাকায় মূর্তি উদ্ধারের ঘটনা দ্বিতীয়বার ঘটল।



মূর্তির অবয়ব দেখে বিশেষজ্ঞের মত, মূর্তি দুটি সম্ভবত খ্রিস্টীয় অষ্টম শতাব্দীর। দুটো মূর্তি বেলে পাথরের তৈরি। উদ্ধার হওয়া বড়ো মূর্তিটি দুর্গার ও ছোটো মূর্তি কালভৈরবের। উদ্ধার হওয়া মূর্তি দুটি জেলা প্রত্নতত্ত্ব বিভাগের কর্মীদের হাতে তুলে দেওয়ার প্রক্রিয়া শুরু করেছে পুলিশ।




আমাদের মালদা এখন টেলিগ্রামেও। জেলার প্রতিদিনের নিউজ পড়ুন আমাদের অফিসিয়াল চ্যানেলে। সাবস্ক্রাইব করতে ক্লিক করুন


Comments


বিজ্ঞাপন

Malda-Guinea-House.jpg

আরও পড়ুন

bottom of page