top of page

পরিবেশ নিয়ে গবেষণা করতে কানাডা যাচ্ছেন মালদার অন্বেষা

পরিবেশ নিয়ে গবেষণার জন্য কানাডায় ডাক পেলেন মালদার মেয়ে অন্বেষা বন্দ্যোপাধ্যায়। আজ তিনি কানাডার উদ্দেশ্যে রওয়ানা দিয়েছেন।


মালদা শহরের ফুলবাড়ি এলাকার বাসিন্দা অন্বেষা। বাবা সত্যজিৎ বন্দ্যোপাধ্যায় কেন্দ্রীয় সিল্ক বোর্ডের কর্মী৷ অন্বেষা ছোটো থেকে মালদা শহরের একটি ইংরেজি মাধ্যমের স্কুলে পড়াশোনা করে। ২০১৪ সালে দ্বাদশ শ্রেণি উত্তীর্ণ হন তিনি। ২০১৮ সালে জয়পুরের ইউনিভার্সিটি অফ ইঞ্জিনিয়ারিং অ্যান্ড ম্যানেজমেন্ট থেকে ইঞ্জিনিয়ারিং পাশ করেন তিনি। ২০২১ সালে আইআইটি গুয়াহাটি থেকে স্নাতকোত্তর শেষ করেন তিনি। এরপর থেকে পরিবেশ নিয়ে পড়া ও গবেষণার ইচ্ছে ছিল তাঁর। অবশেষে কানাডার ম্যাকগিল ইউনিভার্সিটি থেকে স্কলারশিপে গবেষণা করার ডাক পান তিনি।


অন্বেষা জানান,

তাঁর গবেষণার বিষয় সলিড ওয়াস্ট ম্যানেজমেন্ট। জল কিংবা বায়ুদূষণ নিয়ে মানুষের মধ্যে উদ্যোগ দেখা গেলেও কঠিন বর্জ্য নিয়ে মানুষের মধ্যে তেমন সচেতনতা নেই। অথচ ভারতবর্ষের মত কৃষিনির্ভর দেশে এটা সবচেয়ে বড়ো সমস্যা। ভূমি দূষণ থেকে বিপর্যয় নেমে আসতে পারে। এনিয়ে তিনি কানাডায় গবেষণা করবেন। তাঁর গবেষণা দেশের ছাত্রছাত্রীদের মধ্যে ছড়িয়ে দেওয়া উদ্দেশ্য তাঁর।


অন্বেষার বাবা জানান, মেয়ের এই সাফল্যে তাঁরা গর্বিত। তবে মেয়ে যেদিন দেশের কাজে আসবে সেদিন তাঁরা আরও বেশি গর্বিত বোধ করবেন। মেয়ের এই সাফল্যের পেছনে তাঁর মায়ের যথেষ্ট অবদান রয়েছে।




আমাদের মালদা এখন টেলিগ্রামেও। জেলার প্রতিদিনের নিউজ পড়ুন আমাদের অফিসিয়াল চ্যানেলে। সাবস্ক্রাইব করতে ক্লিক করুন

বিজ্ঞাপন

Malda-Guinea-House.jpg

আরও পড়ুন

bottom of page