top of page

গোপনে অন্য মহিলাকে ফোন, প্রতিবাদে স্ত্রীকে খুনের অভিযোগ

রাতে অন্য মহিলার সঙ্গে ফোনে কথা বলার প্রতিবাদ করায় স্ত্রীকে খুনের অভিযোগ উঠল স্বামীর বিরুদ্ধে। ঘটনাটি ঘটেছে বৈষ্ণবনগরের শোভাপুরের পারদেওনাপুরে। মৃতদেহটিকে ময়নাতদন্তে পাঠিয়ে মৃত মহিলার স্বামী ও শ্বশুরকে গ্রেফতার করেছে বৈষ্ণবনগর থানার পুলিশ।



মৃত মহিলার নাম অঞ্জলি সরকার (৩০)৷ পরিবার সূত্রে জানা গেছে, প্রায় ১১ বছর আগে স্থানীয় যুবক সঞ্জয় সরকারের সঙ্গে বিয়ে হয় অঞ্জলির। অভিযোগ, বছর দেড়েক আগে কাজের অজুহাতে সঞ্জয় উত্তর দিনাজপুরের ডালখোলায় যায়৷ এরপর আর বাড়ি ফেরেনি সঞ্জয়। অঞ্জলি জানতে পারেন, সঞ্জয় ডালখোলায় একটি মেয়ের সঙ্গে ঘর করছে৷ এরপরেই পুলিশের দ্বারস্থ হয় অঞ্জলির পরিবারের সদস্যরা। পুলিশ সঞ্জয় সরকারকে ধরে ফেলে। আদালতে জামিন নিয়ে লকডাউনের আগে ঘরে ফিরে আসে সঞ্জয়। ঘরে ফেরার পরেও সঞ্জয়ের সঙ্গে ওই মহিলার যোগাযোগ ছিল৷ প্রতিদিন রাতে ওই মহিলার সঙ্গে ফোনে দীর্ঘক্ষণ কথা বলত সঞ্জয়। বিষয়টি জানতে পেরে প্রতিবাদ করেন অঞ্জলি। এনিয়ে সঞ্জয় ও অঞ্জলির মধ্যে প্রায়শই ঝামেলা লেগে থাকত। অঞ্জলিকে মারধর করত সঞ্জয় বলেও অভিযোগ। আরও অভিযোগ, গতকাল রাতে সঞ্জয় অঞ্জলির পরিবারের সদস্যদের ফোন করে জানায়, অঞ্জলি বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে মারা গিয়েছে৷ অঞ্জলির পরিবারের সদস্যরা ছুটে গিয়ে দেখেন অঞ্জলির মৃত্যু হয়েছে৷ সঞ্জয়কে চেপে ধরতেই সে স্বীকার করে, অঞ্জলির বুকে লাঠির বাড়ি মেরে সে খুন করেছে৷


বৈষ্ণবনগর থানার পুলিশ জানিয়েছে, মৃতদেহটিকে ময়নাতদন্তের জন্য মালদা মেডিকেল কলেজে পাঠানো হয়েছে। এই ঘটনায় অভিযোগের ভিত্তিতে আপাতত দু’জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।



বিজ্ঞাপন

Malda-Guinea-House.jpg

আরও পড়ুন

bottom of page