top of page

কাজ না করেই টাকা আত্মসাতের অভিযোগ পঞ্চায়েতের বিরুদ্ধে

একশো দিন প্রকল্পের বিভিন্ন স্কিমের কাজ না করেই টাকা তুলে নেওয়ার অভিযোগ পঞ্চায়েতের বিরুদ্ধে। অন্যদিকে, পঞ্চায়েতের কাজে বাধা দানের অভিযোগ বিরোধীদের বিরুদ্ধে। ঘটনাকে কেন্দ্র করে চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে হরিশ্চন্দ্রপুর এলাকায়।


হরিশ্চন্দ্রপুর-২ নম্বর ব্লক এলাকার ইসলামপুর গ্রামপঞ্চায়েতের খোপাকাঠি গ্রামে একশো দিনের প্রকল্পের মাধ্যমে বেশ কিছু রাস্তাঘাট ব্যাম্বু পাইলিং ও মাটি ভরাটের কাজের টাকা এসেছে। ইতিমধ্যে বেশ কিছু জায়গায় কাজ শুরু হয়ে গিয়েছে। কিন্তু কাজ শুরু হতেই শুরু হয়েছে এলাকায় গণ্ডগোল। পঞ্চায়েতের বিরোধী নেতারা গ্রামবাসীদের সঙ্গে নিয়ে বিডিও সহ মহকুমাশাসক ও জেলাশাসককে দুর্নীতির অভিযোগ জানিয়েছেন। এদিকে, বিরোধী দলনেতারা পঞ্চায়েতের কাজের বিনিময়ে টাকা দাবি করছেন বলে অভিযোগ করছেন শাসকদলের নেতারা।


স্থানীয় বাসিন্দা কামরুজ্জামান, আকতার আলমরা জানান, এলাকার জন্য যেগুলো স্কিম বরাদ্দ হয়েছিল সেই স্কিমের কাজ না করে ইতিমধ্যেই টাকা তুলে নেওয়া হয়েছে বলে আমাদের কাছে খবর আছে। এলাকার কোনও উন্নয়ন হল না অথচ নেতাদের পকেট ভরল। আমরা এর বিচার চাই।



ওই গ্রামপঞ্চায়েতের সদস্য তথা শাসকদলের সদস্য মাসুদ আলম জানান, সমস্ত অভিযোগ ভিত্তিহীন। এলাকায় পঞ্চায়েতের অধীনে যে সমস্ত একশো দিনের কাজের প্রকল্প এসেছে তা আস্তে আস্তে করা হচ্ছে। ইতিমধ্যে কিছু কাজ হয়েছে। এখনও কিছু কাজ বাকি আছে। এলাকার বিরোধী নেতারা গ্রামবাসীদেরকে শাসকদলের উন্নয়নের বিরুদ্ধে খেপিয়ে তুলেছেন। কিছু বিরোধী নেতা পঞ্চায়েতে এসে কাজের বিনিময় কাটমানি দাবি করছেন। কাটমানি না দিতে পারলে কাজ আটকে দেবেন বলেও হুমকি দিয়েছেন।




আমাদের মালদা এখন টেলিগ্রামেও। জেলার প্রতিদিনের নিউজ পড়ুন আমাদের অফিসিয়াল চ্যানেলে। সাবস্ক্রাইব করতে ক্লিক করুন

Comments


বিজ্ঞাপন

Malda-Guinea-House.jpg

আরও পড়ুন

bottom of page