top of page

বিয়ের দিনে খোঁজ নেই পাত্রের, প্রতারিত হয়ে থানায় যুবতি

বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে কয়েক লক্ষ টাকা প্রতারণার অভিযোগ পাত্রের বিরুদ্ধে। কলেজের অধ্যাপক পরিচয় দিয়ে এক মহিলা স্বাস্থ্যকর্মীর কাছ থেকে ধাপে ধাপে প্রায় ৬ লক্ষ ৬০ হাজার টাকা হাতিয়েছে অভিযুক্ত। এই ঘটনায় পুলিশের দ্বারস্থ হয়েছে প্রতারিত পরিবার।


মহিলা স্বাস্থ্যকর্মীর নাম পূজা সেন (৩১)। বাড়ি আলিপুরদুয়ার শহর এলাকায়। তাঁর বাবা একজন অবসরপ্রাপ্ত সৈনিক। জানা গিয়েছে, পত্রিকায় পাত্র চাই বিজ্ঞাপন দেখে প্রায় তিন বছর আগে কলেজের অধ্যাপক পরিচয় দিয়ে যোগাযোগ করে অভিযুক্ত। নিজের নাম সুমন মজুমদার বলে জানান তিনি। তিনি মালদা শহরের সর্বমঙ্গলাপল্লির বাসিন্দা বলেও জানান পাত্রীপক্ষকে। তাঁদের বিয়েও ঠিক হয়। অভিযোগ, বিয়ের আসবাবপত্র এবং অন্যান্য খরচের কথা বলে ধাপে ধাপে ৬ লক্ষ ৬০ হাজার টাকা নেন অভিযুক্ত। কিন্তু তারপরেও বিয়ের তারিখ পিছোতে থাকে অভিযুক্ত। আজ তাঁদের বিয়ের তারিখ ছিল। কিন্তু পাত্রের খোঁজ না পেয়ে আজ মালদায় ছুটে আসেন পূজাদেবী। মালদায় আসার পরও পাত্রের সঙ্গে দেখা না হওয়ায় অবশেষে পুলিশের দ্বারস্থ হন তিনি।





আমাদের মালদা এখন টেলিগ্রামেও। জেলার প্রতিদিনের নিউজ পড়ুন আমাদের অফিসিয়াল চ্যানেলে। সাবস্ক্রাইব করতে ক্লিক করুন

Comments


বিজ্ঞাপন

Malda-Guinea-House.jpg

আরও পড়ুন

bottom of page