top of page

প্যাড-সিলমোহর-সই জাল করে অভিযোগ, গ্রেফতার সিভিক ভলান্টিয়ার

সরকারি প্যাড, সিলমোহর, জাল সই করে সহকর্মীদের নামে মিথ্যে অভিযোগ জানানোর অভিযোগে এক সিভিক ভলান্টিয়ারকে গ্রেফতার করল পুলিশ। ধৃতের বিরুদ্ধে নির্দিষ্ট ধারায় মামলা রুজু করে তদন্ত শুরু করা হয়েছে। ঘটনাটি পুরাতন মালদার ভাবুক গ্রামপঞ্চায়েত এলাকার।


ধৃত সিভিক ভলান্টিয়ারের নাম বিমল সরকার। বাড়ি ভাবুক গ্রামপঞ্চায়েত এলাকাতেই। পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, ২০১১ সাল থেকে সিভিক ভলান্টিয়ার হিসেবে কর্মরত ছিল বিমল। বছর খানেক আগে এলাকার এক ভিলেজ পুলিশ অন্য চাকরি পেয়ে কাজ ছেড়ে চলে যান। সেখানে নতুন কেউ নিয়োগ না হওয়ায় বিমলকে সেই দায়িত্ব দেওয়া হয়। কিন্তু সঠিকভাবে ডিউটি না করায় বিমলকে ভিলেজ পুলিশ থেকে সরিয়ে ফের সিভিক ভলান্টিয়ারের দায়িত্ব দেওয়া হয়। ভিলেজ পুলিশের দায়িত্ব খোয়ানোর জন্য সহকর্মীদের ওপর সন্দেহ করত বিমল। অভিযোগ, সম্প্রতি বিমল ভাবুক গ্রামপঞ্চায়েত প্রধানের সরকারি ব্যাড ও সিলমোহর ব্যবহার করে জাল সই করে চারজন সিভিক ভলান্টিয়ারের বিরুদ্ধে ডিএসপি, পুলিশসুপার সহ একাধিক আধিকারিকের কাছে অভিযোগ জানায়। সেই অভিযোগপত্রে বলা হয়েছিল, চারজন সিভিক ভলান্টিয়ারের মদতে এলাকায় জুয়ার আসর বসছে। অভিযোগের ভিত্তিতে থানার আইসিকে তদন্তের নির্দেশ দেন পুলিশ আধিকারিকরা। তদন্তে নেমে থানার আইসি জানতে পারেন, প্রধান এমন কোনো অভিযোগ জানাননি। থানায় জাল প্যাড, সিলমোহর ও সই করার অভিযোগ জানান পঞ্চায়েত প্রধান। এরপরই অভিযুক্ত চার সিভিক ভলান্টিয়ারকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। জিজ্ঞাসাবাদেই উঠে আসে বিমলের নাম। এরপরেই বিমলকে গ্রেফতার করা হয়। বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে বিমলের ল্যাপটপ ও প্রিন্টার।



পঞ্চায়েত প্রধান প্রভুনাথ দুবে জানান,

বিষয়টি জানার পরেই আমার প্যাড, সিলমোহর ও স্বাক্ষর জাল হওয়ার অভিযোগ দায়ের করেছিলাম। গতকাল রাতে এই অভিযোগে একজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে বলে শুনেছি।

আমাদের মালদা এখন টেলিগ্রামেও। জেলার প্রতিদিনের নিউজ পড়ুন আমাদের অফিসিয়াল চ্যানেলে। সাবস্ক্রাইব করতে ক্লিক করুন

תגובות


বিজ্ঞাপন

Malda-Guinea-House.jpg

আরও পড়ুন

bottom of page