top of page

পণের দাবিতে গৃহবধূকে খুনের অভিযোগ শ্বশুরবাড়ির বিরুদ্ধে

পণের দাবিতে গৃহবধূকে খুন করে ঝুলিয়ে দেওয়ার অভিযোগ উঠল শ্বশুরবাড়ির লোকদের বিরুদ্ধে৷ মৃতদেহটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তে পাঠিয়েছে পুলিশ৷ ঘটনাকে কেন্দ্র করে ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে চাঁচল-২ ব্লকের ক্ষেমপুর এলাকায়।


মৃত গৃহবধূর নাম কোহিনুর খাতুন (২২)৷ বাড়ি হরিশ্চন্দ্রপুর থানার খোপাকাঠি গ্রামে৷ স্থানীয় ও পরিবার সূত্রে জানা গিয়েছে, প্রায় তিন বছর আগে বিজলি গ্রামের যুবক শাহাবুল হকের সঙ্গে বিয়ে হয় কোহিনুরের৷ শাহাবুল বর্তমানে বেঙ্গালুরুতে শ্রমিকের কাজে রয়েছেন। অভিযোগ, বিয়ের পর থেকেই অতিরিক্ত পণের দাবিতে কোহিনুরের উপর অত্যাচার চালাত শ্বশুরবাড়ির সদস্যরা৷ শ্বশুরবাড়ির লোকদের সেই দাবি না মানার কারণেই কোহিনুরকে খুন করে ঝুলিয়ে দেওয়া হয়েছে।


Accused-killing-hanging-Chanchal-housewife-for-dowry
গৃহবধূকে খুন করে ঝুলিয়ে দেওয়ার অভিযোগ। প্রতীকী ছবি।

কোহিনুরের এক আত্মীয় শামিম জানান, “গতকাল রাতে কোহিনুর ফোনে পরিবারের সঙ্গে কথা বলছিল৷ কেন সে ফোনে কথা বলছিল, তা নিয়েই বচসা শুরু হয়। চলে শারীরিক ও মানসিক অত্যাচারও। আজ সকালে পরিবারের লোকজন জানতে পারেন, কোহিনুরের মৃত্যু হয়েছে। বিয়ের পর থেকে প্রতিমাসেই কোহিনুরের শ্বশুরবাড়ির লোকজন টাকা দাবি করত। বিয়ের সময় চার লক্ষ টাকা টাকা পণ দেওয়ার পরেও বারবার টাকা চাওয়া নিয়ে অশান্তি ছিল৷ কোহিনুরের খুনের পেছনে শ্বশুরবাড়ির লোকদের হাত রয়েছে। দ্রুত তদন্ত করে শাস্তির দাবি তুলেছেন তাঁরা।


আমাদের মালদা এখন টেলিগ্রামেও। জেলার প্রতিদিনের নিউজ পড়ুন আমাদের অফিসিয়াল চ্যানেলে। সাবস্ক্রাইব করতে ক্লিক করুন

বিজ্ঞাপন

Malda-Guinea-House.jpg

আরও পড়ুন

bottom of page