top of page

মিজোরামে দুর্ঘটনায় মৃত্যু মালদার ২৩ শ্রমিকের

মিজোরামে নির্মীয়মান রেলসেতু দুর্ঘটনায় মালদার ২৩ শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে। আপাতত জেলা প্রশাসন সূত্রে এই খবর পাওয়া গিয়েছে। মৃতদের মধ্যে ১৫ জন রতুয়া ২ ব্লকের পুখুরিয়া থানা এলাকার বাসিন্দা। ৬ জন ইংরেজবাজার থানা এলাকার বাসিন্দা এবং বাকি দুজনের বাড়ি গাজোল ও কালিয়াচকে। আজ সকালে এই খবর পৌঁছতেই সমস্ত এলাকায় শোকের ছায়া নেমে আসে। নিহতদের বাড়িতে ছুটে যান প্রশাসনিক আধিকারিকরা। জেলা প্রশাসনের তরফে ওই পরিবারগুলিকে সাহায্যের আশ্বাস দেওয়া হয়েছে।


জানা গিয়েছে, পুখুরিয়া থানার চারটি গ্রাম থেকে প্রায় ৩০জন শ্রমিক একসঙ্গে মিজোরামে কাজে গিয়েছিলেন। আজ সকালে দুর্ঘটনায় পুখুরিয়া থানা এলাকার ১৫ জনের মৃত্যু হয়েছে। ঘটনার খবর পাওয়ার পরেই এলাকায় ছুটে যান পুখুরিয়া থানার ওসি গৌতম চৌধুরি। ছুটে যান অতিরিক্ত জেলাশাসক বৈভব চৌধুরিও। নিহতদের পরিবারের সঙ্গে কথা বলেন অতিরিক্ত জেলাশাসক সহ অন্যান্যরা।



অতিরিক্ত জেলাশাসক জানান,

“ঘটনার খবর পাওয়ার পরেই জেলাশাসকের নির্দেশে পরিবারগুলির সঙ্গে দেখা করতে এসেছি। জেলাশাসক নিজে মিজোরামের জেলাশাসকের সঙ্গে যোগাযোগ রাখছেন। ময়নাতদন্তের পর মৃতদেহগুলিকে দ্রুত নিয়ে আনার চেষ্টা করা হচ্ছে। আহতদের স্থানীয় হাসপাতালে চিকিৎসা চলছে। জেলা প্রশাসন পুরো ঘটনার ওপর নজর রেখেছে।”

এদিকে ঘটনার খবর পেয়ে এলাকায় গিয়েছিলেন সিটুর মালদা জেলা সম্পাদক দেবজ্যোতি সিনহা, মালদা জেলা আইনটিটিইউসির সভাপতি শুভদীপ সান্যাল সহ অন্যান্য রাজনৈতিক ব্যক্তিত্বরাও। দেবজ্যোতি সিনহা বলেন, মর্মান্তিক ঘটনা। এলাকায় কাজ না থাকায় মালদার শ্রমিকদের ভিনরাজ্যে কাজ করতে গিয়ে মৃত্যুর মুখে পড়তে হচ্ছে। আমরা ওই শ্রমিকদের পরিবারের পাশে রয়েছি।



আমাদের মালদা এখন টেলিগ্রামেও। জেলার প্রতিদিনের নিউজ পড়ুন আমাদের অফিসিয়াল চ্যানেলে। সাবস্ক্রাইব করতে ক্লিক করুন

বিজ্ঞাপন

Malda-Guinea-House.jpg

আরও পড়ুন

bottom of page