top of page

জোগান নেই! ভ্যাকসিন না নিয়েই ফিরছে উপভোক্তারা

করোনার তৃতীয় ঢেউ আছড়ে পড়ার আগে ভ্যাকসিন নিতে আগ্রহ দেখা গিয়েছে সাধারণ মানুষের মধ্যে। কিন্তু ঠিক সেই সময় দেখা দিয়েছে ভ্যাকসিনের আকাল। যেটুকু হাতে রয়েছে, তা দেওয়া হচ্ছে দ্বিতীয় ডোজ প্রাপকদের। এই মুহূর্তে পুরাতন মালদার কোথাও ভ্যাকসিনের প্রথম ডোজ দেওয়া হচ্ছে না। এতে প্রবল সমস্যায় পড়েছেন সাধারণ মানুষ।


ভাইরাসের হাত থেকে বাঁচতে তাঁরা প্রতিদিন সকালে স্থানীয় হাসপাতাল কিংবা পুরসভার স্বাস্থ্যকেন্দ্রে লাইনে দাঁড়াচ্ছেন। কিন্তু দীর্ঘক্ষণ লাইনে দাঁড়ানোর পর তাঁদের জানানো হচ্ছে, প্রথম ডোজ দেওয়ার মতো ভ্যাকসিন আসেনি। তাই কাউকে প্রথম ডোজ দেওয়া হবে না। এই কথা শুনে ফিরে যেতে হচ্ছে প্রথম ডোজ নিতে আসা ইচ্ছুক মানুষজনকে। কবে পর্যাপ্ত ভ্যাকসিন জেলায় আসবে, কবে থেকে প্রথম ডোজ দেওয়া শুরু হবে, সেটাও এখনও পর্যন্ত জানা নেই কারও।



আজ পুরাতন মালদার মৌলপুর গ্রামীণ হাসপাতালে ভ্যাকসিন নিতে এসেছিলেন ঝুলন দাস। তিনি বলেন, করোনার ভ্যাকসিন এসেছিলাম। এখানে বলা হচ্ছে, ভ্যাকসিন নেই। প্রথম ডোজ দেওয়া হবে না। অথচ সরকার বলছে, রাজ্যের সব জায়গায় পর্যাপ্ত ভ্যাকসিন রয়েছে। এর আগেও একদিন ফিরে যেতে হয়েছে। ভ্যাকসিন না নিলে ট্রেনেও উঠতে দেওয়া হচ্ছে না, অনেক জায়গায় ঢুকতে দেওয়া হচ্ছে না। সরকারের উচিত বিষয়টির দিকে নজর দেওয়া।




আমাদের মালদা এখন টেলিগ্রামেও। জেলার প্রতিদিনের নিউজ পড়ুন আমাদের অফিসিয়াল চ্যানেলে। সাবস্ক্রাইব করতে ক্লিক করুন

תגובות


বিজ্ঞাপন

Malda-Guinea-House.jpg

আরও পড়ুন

bottom of page