top of page

জেলায় অলচিকি হরফে পড়ার স্কুল মাত্র একটি, সমস্যায় আদিবাসী ছেলেমেয়েরা

মালদা জেলায় প্রায় ৮ লক্ষ ৪০ হাজার আদিবাসী সম্প্রদায়ের মানুষের বসবাস। অথচ আদিবাসী সম্প্রদায়ের ছেলেমেয়েদের সাঁওতালি ভাষা এবং অলচিকি হরফে পড়াশোনার জন্য একটি মাত্র স্কুল রয়েছে। সেই স্কুলের পরিকাঠামো নিয়েও নানা অভিযোগ রয়েছে। এই পরিস্থিতিতে জেলায় আরও সাঁওতালি ভাষা এবং অলচিকি হরফে পঠনপাঠনের স্কুলের দাবি উঠতে শুরু করেছে।


মালদা জেলায় সাঁওতালি ভাষা এবং অলচিকি হরফে পড়াশোনার জন্য একমাত্র স্কুল রয়েছে পুরাতন মালদার ভাবুক গ্রামপঞ্চায়েতের থুকড়াবাড়ি গ্রামে৷ জানা গিয়েছে, ২০১৪ সালে থুকড়াবাড়ি অলচিকি প্রাথমিক বিদ্যালয় হিসাবে এই স্কুল চালু হয়েছিল। সেই সময় বাংলা মাধ্যমের শিক্ষকরা সেখানে পঠনপাঠন দেওয়া শুরু করেন। ২০২০ সালে প্রাথমিক থেকে অষ্টম শ্রেণি পর্যন্ত পঠনপাঠনের ব্যবস্থা চালু হয় স্কুলে। বর্তমানে স্কুলে সাতজন শিক্ষক রয়েছেন। সকলেই সাঁওতালি ভাষা এবং অলচিকি হরফ জানেন৷ স্কুলে প্রাথমিক স্তরে ৫৫ জন ও ষষ্ঠ থেকে অষ্টম শ্রেণির ৩০ জন পড়ুয়া রয়েছে। স্কুলে ক্লাসরুমের সংখ্যা মাত্র তিনটি। স্কুলে হস্টেলের ব্যবস্থা না থাকায় দূর থেকে আসা পড়ুয়াদের সমস্যায় পড়তে হয়।


স্কুলের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক রামা ঠাকুর জানান,

স্কুলে ক্লাসরুমের সংখ্যা মাত্র তিনটি। ফলে ক্লাস করতে ভীষণ সমস্যায় পড়তে হচ্ছে৷ কখনও পড়ুয়াদের বারান্দায় বসিয়ে কখনও আবার গাছতলাতে ক্লাস নিতে হয়৷ এই এলাকাটি পুরোপুরি আদিবাসী অধ্যুষিত৷ জেলায় যে পরিমাণে আদিবাসী মানুষ রয়েছে, তাদের ছেলেমেয়েদের পড়াশোনার জন্য একটি স্কুল পর্যাপ্ত নয়৷ জেলার বিভিন্ন ব্লক থেকে ছেলেমেয়েরাও এখানে পড়তে আসে। স্কুলে হস্টেল না থাকায় অনেকেই স্থানীয় বাসিন্দাদের বাড়িতে থাকতে বাধ্য হয়।


স্কুলের পড়ুয়াদের দাবি,

একেকটা ঘরে দুটো থেকে তিনটে ক্লাস চলে৷ ক্লাস করতে প্রচণ্ড অসুবিধে হয়। স্কুলে নবম-দশম শ্রেণি চালু না হওয়ায় অষ্টম শ্রেণির পরে অনেকেই পড়াশোনা ছেড়ে দিচ্ছে। হস্টেল না থাকায় ছাত্রছাত্রীদের সমস্যায় পড়তে হয়।

পুরাতন মালদার এসআই অফ স্কুলস সৌমিত্র সরকার জানান, ওই স্কুলে ক্লাস সিক্স থেকে এইট পর্যন্ত কোনও ক্লাসরুম নেই৷ স্কুলে আরও দুটি ঘর অনুমোদিত হয়েছে৷ দ্রুত সেই কাজ শুরু হবে৷ স্কুলে হস্টেল তৈরি এবং দ্রুত নবম ও দশম শ্রেণি খোলার আবেদন জানানো হয়েছে৷


আমাদের মালদা এখন টেলিগ্রামেও। জেলার প্রতিদিনের নিউজ পড়ুন আমাদের অফিসিয়াল চ্যানেলে। সাবস্ক্রাইব করতে ক্লিক করুন

বিজ্ঞাপন

Malda-Guinea-House.jpg

আরও পড়ুন

bottom of page