top of page

এনআরসি আতঙ্কে মালদায় মৃত্যু, অভিযোগ পরিবারের

এনআরসি আতঙ্কে মৃত্যুর অভিযোগ পুরাতন মালদায়। গতকাল রাতে ঘটনাটি ঘটেছে পুরাতন মালদার ১৩ নম্বর ওয়ার্ডের খইহাট্টা এলাকায়। গোটা ঘটনাকে কেন্দ্র করে চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে।


স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, ২০ বছর আগে বাংলাদেশ থেকে ভারতে এসেছিলেন সত্য কুণ্ডু নামে এক ব্যক্তি। বর্তমানে তিনি পুরাতন মালদার ১৩ নম্বর ওয়ার্ডে একটি বাড়ি ভাড়া নিয়ে থাকতেন। অভিযোগ, রাজ্যে এনআরসি ইশ্যু ছড়িয়ে পড়তেই চিন্তিত হয়ে পড়েন সত্যবাবু। গতকাল রাতে ভাড়া বাড়িতে তাঁকে পড়ে থাকতে দেখা যায়। স্থানীয় লোকজন তাঁকে উদ্ধার করে মালদা মেডিকেল কলেজে নিয়ে যান। মেডিকেল কলেজে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যু হয় সত্যবাবুর।



স্থানীয় বাসিন্দা প্রদ্যোৎ কুণ্ডু জানান, ২০ বছর ধরে সত্যবাবু এলাকায় বসবাস করছেন। রাজ্যে এনআরসি আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়তেই চিন্তিত হয়ে পড়েছিলেন সত্যবাবু। এনিয়ে একাধিকবার তিনি স্থানীয় কাউন্সিলর সহ বিভিন্ন সরকারি দপ্তরে ছুটে বেড়িয়েছেন। এনআরসি আতঙ্ক তাঁকে দিনেদিনে গ্রাস করছিল। সেই আতঙ্কেই হৃদরোগে আক্রান্ত হন তিনি। গতকাল রাতে মালদা মেডিকেল কলেজে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যু হয় তাঁর।


একই বক্তব্য স্থানীয় কাউন্সিলর পরিতোষ ঘোষের। তিনি বলেন, রাজ্যে এনআরসি হওয়ার আশঙ্কায় দীর্ঘদিন ধরেই ভুগছিলেন সত্যবাবু। একাধিকবার সত্যবাবু তাঁর অফিসে যোগযোগ করেছিলেন। সরকারি দপ্তরে দিনরাত ছুটোছুটি করে বেড়াচ্ছিলেন তিনি। এনআরসি আতঙ্কেই হৃদরোগে আক্রান্ত হয়েছিলেন তিনি।


এদেশে সত্যবাবুর পরিবারের লোকজন না থাকায় বর্তমানে তাঁর মৃতদেহের ঠিকানা মালদা মেডিকেলের মর্গ। যদিও এই ঘটনার পুলিশ প্রশাসনের কোনও প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি।

Comments


বিজ্ঞাপন

Malda-Guinea-House.jpg

আরও পড়ুন

bottom of page