top of page

গঙ্গাবক্ষে ভেসেল ডুবির ঘটনায় এখনও নিখোঁজ দুই, চলছে উদ্ধারকাজ

ফেরিঘাট কর্তৃপক্ষ ও মানিকচক থানা পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, সোমবার সন্ধেয় ঝাড়খণ্ডের রাজমহল থেকে ১০টি লরি বোঝাই একটি ভেসেল মানিকচক গঙ্গার ঘাটে আসছিল। প্রত্যেকটি লরি পাথর বোঝাই করে ফিরছিল। মানিকচক ঘাটের জেটিতে লাগার সময় ইঞ্জিন বিকল হয়ে ভেসেলের নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফেলেন চালক৷ অল্প সময়ের মধ্যেই গাড়ি সহ ভেসেলটি জলে ডুবে যায়। এই ঘটনায় এখনও নিখোঁজ দুই যুবক৷ তাঁদের খোঁজে তল্লাশি চালাচ্ছে বিপর্যয় মোকাবিলা দফতর৷ নদী থেকে পাথর বোঝাই লরি তুলে আনতে ব্যবহার করা হচ্ছে ক্রেন৷ প্রাথমিকভাবে অনুমান, নিখোঁজ দুই ব্যক্তি লরি থেকে বেরোতে পারেননি৷




রাতেই খবর পেয়ে দুর্ঘটনাস্থলে পৌঁছে কাজ শুরু করে বিপর্যয় মোকাবিলা দফতর৷ মানিকচকে চলে আসেন জেলাপরিষদের সভাপতি, জেলাশাসক ও পুলিশসুপার৷ ঘাট সংলগ্ন এলাকা অন্ধকার থাকায় জেনারেটরের মাধ্যমে সার্চ লাইট জ্বেলে শুরু হয় উদ্ধারকাজ। গভীর রাত পর্যন্ত চলতে থাকে তল্লাশি৷ আজ ভোর থেকে ফের তল্লাশি শুরু করে বিপর্যয় মোকাবিলা দফতর৷ ঘটনাস্থানে আনা হয়েছে বোট। নামানো হয়েছে দু’টি ক্রেন৷ ক্রেনের সাহায্যে তলিয়ে যাওয়া লরি উদ্ধারের চেষ্টা চলছে৷ জানা গিয়েছে, এখনও পর্যন্ত মইনুর শেখ (২৮) ও মান্তু শেখ (৩০) নামে দুই যুবক নিখোঁজ রয়েছেন৷ তাঁদের খোঁজে তল্লাশি চালাচ্ছে বিপর্যয় মোকাবিলা দফতর৷



জেলা প্রশাসন সূত্রে খবর, ভেসেলের নয়জন যাত্রীকে উদ্ধার করা হয়েছে। তাঁদের মেডিকেল কলেজ এবং মানিকচক গ্রামীণ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। তাঁরা সকলেই সুস্থ আছেন। এছাড়া ভেসেল তলিয়ে যাওয়ার মুহূর্তে বেশকিছু যাত্রী জলে ঝাঁপ দেয়। সাঁতরে পাড়ে উঠেন অনেকেই। তবে নিখোঁজের যাত্রীদের সংখ্যা প্রশাসন সূত্রে এখনও স্পষ্টভাবে জানা যায় নি।


আমাদের মালদা এখন টেলিগ্রামেও। জেলার প্রতিদিনের নিউজ পড়ুন আমাদের অফিসিয়াল চ্যানেলে। সাবস্ক্রাইব করতে ক্লিক করুন

বিজ্ঞাপন

Malda-Guinea-House.jpg

আরও পড়ুন

bottom of page