top of page

কংগ্রেস প্রার্থীদের বাড়িতে ভাঙচুর, বোমাবাজি

আসন্ন পঞ্চায়েত নির্বাচন নিয়ে আবার উত্তপ্ত রাজনৈতিক মহল। কংগ্রেসের ৫ জন প্রার্থীর বাড়িতে ভাঙচুর, বোমাবাজি ও অগ্নিসংযোগের ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়েছে। স্থানীয় কংগ্রেস নেতৃত্বের অভিযোগ, সমস্ত ঘটনায় তৃণমূলের আশ্রিত দুষ্কৃতীদের যোগ রয়েছে। এই অভিযোগকে উড়িয়ে দিয়ে তৃণমূল নেতৃত্বের পালটা অভিযোগ, কংগ্রেসের গোষ্ঠী কোন্দলের জেরেই এই ঘটনা। ঘটনাটি ঘটেছে রতুয়া থানার চাঁদমনি-২ গ্রাম পঞ্চায়েত বালুপুর গ্রামে।



কংগ্রেসের পক্ষ থেকে চাঁদমনি ২ গ্রাম পঞ্চায়েতের ১৪৭ নম্বর বুথের প্রার্থী মাসুদুর রহমান, ১৪৮ নম্বর বুথের প্রার্থী মতিউর রহমান, ১৫৫ নম্বর বুথের প্রার্থী নুরুল হোসেন, ২৫ নম্বর বুথের প্রার্থী হিসেবে হাসনারা বিবি গ্রাম পঞ্চায়েত নির্বাচনে মনোনয়ন জমা করেন। পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, পুরো ঘটনাটি নিয়ে কংগ্রেসের পক্ষ থেকে রতুয়া থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের হয়েছে। তৃণমূল নেতৃত্বও তাদের বিরুদ্ধে মিথ্যা প্রচার করার অভিযোগ এনে পালটা অভিযোগ দায়ের করেছেন।

রতুয়া ১ ব্লকের কংগ্রেস দলের সভাপতি আবদুল হামিদ বলেন, কংগ্রেসের প্রার্থীদের মনোনয়ন প্রত্যাহার করার জন্য স্থানীয় তৃণমূল কর্মীরা চাপ দিচ্ছিল। মনোনয়ন প্রত্যাহার না করার কারণেই তাদের বাড়ি ভাঙচুর করার পাশাপাশি আগুন ধরিয়ে দেওয়া হয়। এমনকি বোমাবাজিও করা হয়েছে বলে অভিযোগ।

তৃণমূল কংগ্রেসের জেলা সভাপতি মোয়াজ্জেম হোসেন বলেন, কংগ্রেস দলের মধ্যেই ব্যাপক গোষ্ঠী কোন্দল চলছে। ওই দলে যারা প্রার্থী হতে পারেনি তারাই সম্ভাব্য কংগ্রেস দলের প্রার্থীদের বাড়িতে ভাঙচুর, বোমাবাজির পাশাপাশি অগ্নিসংযোগের ঘটনা ঘটিয়েছে। কংগ্রেস নিজেদের দুর্বলতা এখন তৃণমূলের ঘাড়ে চাপিয়ে দিতে চাইছে। পুরো ঘটনাটি পুলিশ তদন্ত করলেই পরিষ্কার হয়ে যাবে।

চাঁচলের এসডিপিও সজল কান্তি বিশ্বাস বলেন, পুরো ঘটনাটি নিয়ে তদন্ত শুরু হয়েছে। সব বিষয়গুলো খতিয়ে দেখে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

আমাদের মালদা এখন টেলিগ্রামেও। জেলার প্রতিদিনের নিউজ পড়ুন আমাদের অফিসিয়াল চ্যানেলে। সাবস্ক্রাইব করতে ক্লিক করুন


প্রতীকী ছবি সৌজন্যে পিক্স অ্যাবে।


বিজ্ঞাপন

Malda-Guinea-House.jpg

আরও পড়ুন

bottom of page